আগের সম্পর্ক চুকে যাওয়া নিশ্চিত হয়েই আমরা বিয়ে করেছি : সুবাহ

0
34

(দিনাজপুর২৪.কম) সম্প্রতি কণ্ঠশিল্পী ইলিয়াস ও হুমায়রাহ সুবাহর বিয়ের খবর সামনে এসেছে। প্রথমে বিষয়টি অন্তরালে থাকলেও পরে প্রকাশ্যে আসে। আর এ ঘটনার পর ‘সাবেক’ স্ত্রী কারিন নাজ গণমাধ্যমকে জানান যে ইলিয়াসের সঙ্গে তার বিচ্ছেদ হয়নি।

তবে কারিনের এ দাবিকে উড়িয়ে দিয়েছেন হুমায়রা সুবাহ। রবিবার সকালে কালের কণ্ঠকে বললেন, ‘কারিনের ইলিয়াসের সঙ্গে সম্পর্ক চুকে যাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পর আমি ইলিয়াসের সঙ্গে বিয়েবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছি। এসংক্রান্ত সব কাগজপত্র আমার কাছে রয়েছে।’

আমি কোনো চুরি করিনি, সব কিছু জেনেশুনে বৈধভাবে বিয়ে করেছি। আমার স্বামীও অবৈধ কোনো কাজ করেনি। আমরা এখন শান্তিতে সংসার করতে চাই। তবে কেউ যদি ঝামেলা করতে চায় তাহলে আমরা সেভাবে প্রস্তুতি নেব।

সুবাহ ফেসবুকে লিখেছেন,  ‘ওই মেয়ে থাকে বিদেশে, তিন বছর ধরে বাংলাদেশে আসে না, শুধু মোবাইলে মোবাইলে কথা বললে কি সংসার হয় নাকি?

ইলিয়াসকে মানসিকভাবে নির্যাতন করতেন কারিন নাজ- এমন অভিযোগ সুবাহর। তিনি বলেন, ‘সে মেন্টালি পেরা দিত  অলওয়েজ-  এটা ইলিয়াসের সার্কেলের সবাই জানে যে ওরা ম্যারেড লাইফে কখনো হ্যাপি ছিল না।  আর ওই মেয়ে তিন বছর ধরে বাংলাদেশে আসে না, ফিজিক্যাল রিলেশনও ছিল না। আমি তখন ইলিয়াসের ভালো বন্ধু ছিলাম, পরে আমাদের দুজনের ভালোলাগা থেকেই বিয়ের ডিসিশন নিয়ে আমরা পারিবারিকভাবে সবাইকে জানিয়ে যা করার করেছি। আমরা তো পাপ কিছু করিনি।

বিয়ের সম্পর্কে জড়ানো প্রসঙ্গে  সুবাহ বলেন, ‘ডিভোর্স লেটার দেখেই জড়িয়ে ছিলাম আমি, তা-ও বৈধভাবে ইভেন কারিন ও তার মা সুকন্যাকে-দিপাকেও আমি নিজেই সব খুলে বলেছি যে আমরা দুজন বিয়ে করে ফেলব। ইলিয়াস আমাকে বিয়ে করতে চায়। আমিও চাই। তা-ও দুই মাস আগে,  এখন যদি ওই মহিলারা অস্বীকার করেন যে তারা কিছুই জানেন না, মানুষকে উল্টাপাল্টা মিথ্যা বলেন, তাহলে আমার কাছে প্রমাণ আছে যে ইনফর্ম করেছিলাম তাদেরকে  অনেক আগেই।

ইলিয়াসের বিয়ে করার উদ্যোগ প্রসঙ্গে সুবাহ বলেন, ‘যদি কোনো পুরুষের ক্ষমতা থাকে বউ পালার, সে একের অধিক বিয়ে করতে পারে। আর এমন তো না যে ডিভোর্স না দিয়ে বাচ্চা রেখে বিয়ে করেছে ইলিয়াস। আমরা দুজন দুজনের সঙ্গে ভালো আছি সংসার নিয়ে আলহামদুলিল্লাহ। আমরা চেয়েছিলাম যখন ফাইনালি বড় করে অনুষ্ঠান করব তখন মিডিয়া পাবলিককে বলব; কিন্তু এত অশান্তির জন্য তা করা সম্ভব হলো না। আমাদের জন্য দোয়া করবেন। বিনা কারণে হ্যারেসমেন্ট করলে মানহানি মামলা করতে বাধ্য হব, আইন সবার জন্যই সমান। আমার কিছু বলার নেই আর।

ইলিয়াস ও সুবাহর বিষয় নিয়ে কারিন নাজ জানিয়েছেন, তাদের এখনো সম্পর্কচ্ছেদ হয়নি। এর পরই সুবাহ নিজের প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করলেন। অনলাইন ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here