‘একজন কাউন্সিলরও যদি বলে আমাকে চায় না, তাহলে দায়িত্বে থাকব না’

0
57
আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। পিআইডি

(দিনাজপুর২৪.কম) আওয়ামী লীগ সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘আওয়ামী লীগের একজন কাউন্সিলরও যদি বলে আমাকে চায় না, তাহলে আমি দায়িত্বে থাকব না। এটা যেদিন থেকে আমার অবর্তমানে সভাপতি নির্বাচিত করা হয়েছিল, সেদিন থেকে এই শর্ত দিয়েছিলাম। সেটা মেনে যাচ্ছি।’

আজ বৃহস্পতিবার গণভবনে যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রের ১৮ দিনের সফরের অভিজ্ঞতা জানাতে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।  আগামী ডিসেম্বরে আওয়ামী লীগের জাতীয় সম্মেলন হওয়ার কথা রয়েছে, এখানে নতুন করে কোনো চমক থাকছে কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, নতুন চমক কিসের? জবাবে প্রশ্নকারী সাংবাদিক বলেন, নেতৃত্বের চমক। আপনি কাউকে দায়িত্ব দিয়ে যান বা ভবিষ্যৎ নেতৃত্ব তৈরি করে দেবেন এ রকম কিছু। জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এটা ঠিক, দীর্ঘদিন হয়ে গেছে। অবশ্যই আমি চাই নতুন নেতৃত্ব আসুক। কাউন্সিলররা নেতৃত্ব ঠিক করে থাকেন।’  প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘একটানা ক্ষমতায় আছি বলেই উন্নয়নশীল দেশে পরিণত হয়েছে বাংলাদেশ। ২০২০ সালে জাতির পিতার জন্মশতবার্ষিকী ও ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে আমার লক্ষ্য ছিল। সুবর্ণজয়ন্তীতে উন্নয়নশীল দেশের মর্যাদা পেয়েছি। এখন বিদায় নেওয়ার জন্য আমি প্রস্তুত।’

উল্লেখ্য, যুক্তরাজ্য ও যুক্তরাষ্ট্রে ১৮ দিনের রাষ্ট্রীয় সফর শেষে গত সোমবার মধ্য রাতে ঢাকায় ফেরেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সফরের শুরুতে ১৫ সেপ্টেম্বর রাষ্ট্রীয় সফরে লন্ডনে যান তিনি। সেখানে রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া এবং রাজা তৃতীয় চার্লসের সিংহাসনে আরোহণ অভ্যর্থনা অনুষ্ঠানে অংশ নেন তিনি। এরপর নিউইয়র্কের উদ্দেশে ১৯ সেপ্টেম্বর লন্ডন ত্যাগ করেন।

যুক্তরাষ্ট্রে অবস্থানকালে শেখ হাসিনা ২৩ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের (ইউএনজিএ) ৭৭তম অধিবেশনে ভাষণ দেন। জাতিসংঘ অধিবেশনের ফাঁকে ফাঁকে বিভিন্ন উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে তিনি অংশ নেন। বেশ কয়েকজন রাষ্ট্রনেতার সঙ্গে তার দ্বিপক্ষীয় বৈঠক হয়। স্থানীয় সময় ২৪ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় সড়কপথে নিউইয়র্ক থেকে ওয়াশিংটন ডিসিতে যান প্রধানমন্ত্রী ও তার সফরসঙ্গীরা।

এর আগে গত ১৪ সেপ্টেম্বর ভারত সফর নিয়ে গণভবনে সংবাদ সম্মেলন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here