কিশোরী ধর্ষণ, অভিযুক্ত বাবাকে রেখে ছেলেকে ছেড়ে দিল পুলিশ

0
86
প্রতীকী ছবি।

(দিনাজপুর২৪.কম) লক্ষ্মীপুরে কিশোরীকে একাধিকবার ধর্ষণের অভিযোগে আবদুর রশিদ নামের এক প্রতিবেশীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। রবিবার (২ জানুয়ারি) দুপুরে সদর থানায় কিশোরীর খালা বাদী হয়ে ধর্ষণ ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ জানিয়েছে, শনিবার (১ জানুয়ারি) রাতে সদর উপজেলার ভবানীগঞ্জ ইউনিয়নের একটি গ্রাম থেকে রশিদকে আটক করা হয়েছে। তিনি চার সন্তানের জনক ও পেশায় কৃষক।

পুলিশ ও ভুক্তভোগী কিশোরী জানায়, কিশোরীর মা-বাবা মানসিক প্রতিবন্ধী। প্রায় এক বছর আগে এক রাতে ঘরে ঢুকে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করেন আবদুর রশিদ। ঘটনাটি কাউকে বললে তার ছোট ভাইকে হত্যা করবেন বলে হুমকি দেন বলে দাবি কিশোরীর। সেই ভয়ে সে ঘটনাটি কাউকে জানায়নি।

একপর্যায়ে বিষয়টি জেনে এক প্রতিবেশীর স্ত্রী কিশোরীকে জন্মনিরোধক ট্যাবলেট খাওয়ান। এতে সে অসুস্থ হয়ে পড়লে স্থানীয় চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে ধর্ষণের বিষয়টি কাউকে জানাননি ওই প্রতিবেশী নারী।

এদিকে ছয় মাস ধরে প্রায় রাতে ঘরে ঢুকে রশিদ কিশোরীকে ধর্ষণ করেন। সম্প্রতি ঘটনাটি স্থানীয়ভাবে জানাজানি হয়। এতে শনিবার (১ জানুয়ারি) রাতে আবদুর রশিদ, তাঁর ছেলে ও স্থানীয় চিকিৎসক আবদুজ্জাহের মানিককে আটক করে থানায় নিয়ে আসে পুলিশ। পরে অভিযুক্তের ছেলে ও মানিকের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ না থাকায় তাঁদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

রশিদের ছেলে জানান, বাবার অপরাধে তিনি লজ্জিত। তাঁর কাছে এ ধরনের কাজ আশা করেননি।

মামলার বাদী বলেন, ‘আমার বোন ও দুলাভাই দুজনই মানসিক প্রতিবন্ধী। ভয়-ভীতি দেখিয়ে ধর্ষণ করে ঘটনাটি কাউকে না জানাতে সব সময় চাপ দেওয়া হতো। এ ঘটনায় আমরা ন্যায়বিচার চাই।’

লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জসিম উদ্দিন বলেন, রশিদের বিরুদ্ধে ধর্ষণ মামলা দায়ের করা হয়েছে। তাঁকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে লক্ষ্মীপুর আদালতে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে।-অনলাইন ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here