ক্রিকেটার মোশাররফ রুবেল মারা গেছেন

0
90

(দিনাজপুর২৪.কম) জীবনযুদ্ধে আর টিকে থাকতে পারলেন না বাংলাদেশ জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল। দীর্ঘদিন ক্যান্সারে আক্রান্ত থাকার পর শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তার পরিবারের সদস্যরাই বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়ষ হয়েছিল ৪০ বছর।

জাতীয় দলের সাবেক ক্রিকেটার মোশাররফ হোসেন রুবেল দীর্ঘদিন যাবত ব্রেন টিউমারে আক্রান্ত ছিলেন। ২০১৯ সালে ব্রেইন (মস্তিষ্কে) টিউমার ধরা পড়লে ঘরোয়া ক্রিকেট থেকেও ছিটকে পড়েন মোশাররফ রুবেল। উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুরে যান। সেখানে দফায় দফায় কেমোথেরাপির পর কিছুটা সুস্থ হয়ে উঠেন তিনি। এরপর আবার সেই টিউমার দেখা দেয়। এরপর দীর্ঘদিন ভারতের একটি হাসপাতালে তার চিকিৎসা হয়।

ভারত থেকে ফিরে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালের আইসিইউতেও ছিলেন বেশ কিছুদিন। সেখানে অবস্থানকালে তার মৃত্যুর ভুয়া খবর প্রকাশ পায়। পরে অবশ্য জানা যায় তিনি ভালো আছেন। এরপর শারীরিক উন্নতি ঘটলে তাকে নিজের বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। আর বাড়িতেই মারা গেলেন তিনি।

অকাল মৃত্যুই হলো এই ক্রিকেট তারকার। অথচ রুবেলের জীবনের চিত্রটা ভিন্নও হতে পারতো। নিজের ক্যারিয়ারটা আরও সমৃদ্ধ করতে পারতেন তিনি। কিংবা খেলা শেষে যোগ দিতে পারতেন কোচিংয়েও। আবার বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পরিচালনার দায়িত্ব পালনের সুযোগ ছিলও।

২০০৮ সালে জাতীয় দলের হয়ে প্রথমবারের মতো খেলা সুযোগ পান মোশাররফ হোসেন রুবেল। বাংলাদেশের জার্সিগায়ে রুবেলের প্রথম ম্যাচটা ছিলো শক্তিশালী দক্ষিন আফ্রিকার বিপক্ষে। প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ওই সিরিজের তিনটি ম্যাচেই একাদশে ছিলেন তিনি। পেয়েছিলেন একটি উইকেট। এরপর ২০১৩ সালে শ্রীলঙ্কা সফরে ছিলেন রুবেল। তবে কোনো ম্যাচে জায়গা পাননি।

তিন বছর পর আফগানিস্তান সিরিজে আবারও জাতীয় দলে ফেরেন রুবেল। এবার সুযোগ পান একাদশেও। জাতীয় দলের জার্সিতে মাঠে নেমে তুলে নেন তিনটি উইকেট। দলকে জেতাতে বড় ভূমিকাও রাখেন তিনি। কিন্তু পরের ম্যাচে উইকেট না পাওয়ায় রুবেল আবার জাতীয় দল থেকে বাদ পড়েন। ফলে তার ক্যারিয়ার সেখানেই থেমে যায়। -নিউজ ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here