ঘোড়াঘাটে বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ কুন্ডুকে রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় বিদায়

0
37

মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদ (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ চন্দ্র কুন্ডুর রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়েছে। রবিবার বিকেলে ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার বড়গলিতে অবস্থিত তার নিজ বাসভবনে ঘোড়াঘাট থানা পুলিশের একটি চৌকস দল বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ কুন্ডুকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন ।এ সময় ঘোড়াঘাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাফিউল আলম এবং ঘোড়াঘাট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবু হাসান কবির উপস্থিত ছিলেন এছাড়াও ঘোড়াঘাট উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের নেতৃবৃন্দ ও জনপ্রতিনিধি সহ গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থত ছিলেন। মৃত্যুকালে দেশের এই সূর্য সন্তানের বয়স হয়েছিল ৯২ বছর। বার্ধক্যজনিত নানা জটিলতায় তিনি রংপুর ডক্টরস ক্লিনিকে চিকিৎসাধীন ছিলেন।দিনাজপুরের ঘোড়াঘাটে বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ চন্দ্র কুন্ডুর পরলোক গমণ।রবিবার ৭ আগস্ট রবিবার দুপুর ১২টায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। রবিবার সন্ধ্যায় ঘোড়াঘাট থানা পুলিশের একটি চৌকস দল বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ কুন্ডুকে গার্ড অব অনার প্রদান করেন।বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ চন্দ্র কুন্ডু ইতিপূর্বে ঘোড়াঘাট উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার এবং থানা আওয়ামীলীগের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। মৃত্যুকালে তিনি ৩ ছেলে ও ২ মেয়ে রেখে গেছেন।পরিবার সূত্রে জানা যায়, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডাঃ কমলেশ চন্দ্র কুন্ডু রাজশাহী মেডিকেল কলেজ এর দ্বিতীয় ব্যাচের শিক্ষার্থী ছিলেন। মুক্তিযুদ্ধ চলাকালীন ১৯৭১ সালে মুজিবনগর সরকার কর্তৃক তাকে মেডিকেল অফিসার হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হয়। সে সময় তিনি যুদ্ধাহত মুক্তিযোদ্ধাদেরকে চিকিৎসা সেবা প্রদান করেছেন। আরো জানা যায়, ঘোড়াঘাট পৌর এলাকার আজাদ মোড়ে তিনি নিজের নামে ডাঃ কমলেশ চন্দ্র কুন্ডু শপিং কমপ্লেক্স এবং তার স্ত্রীর নামে সাধনা ফিলিং স্টেশন স্থাপন করেছেন।এছাড়াও যুদ্ধ পরবর্তী সময়ে তিনি ফ্রি চিকিৎসা সেবা সহ বিভিন্ন ধরণের সেবামূলক সামাজিক কার্যক্রমে জড়িত ছিলেন।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here