চলন্ত গাড়ি বসে শুদ্ধভাবে নামায আদায় করবেন যেভাবে

0
64

(দিনাজপুর২৪.কম) চলন্ত বাসে যদি বাস থামিয়ে নামায পড়ার সুযোগ না থাকে, তাহলে কিভাবে নামায আদায় করবো? নাকি কাযা করবো? দয়া করে বিস্তারিত জানালে ভালো হতো।

উত্তর-

যদি বাস থামে, তাহলে বাস থেকে নেমে নামায আদায় করবে। আর যদি না থামে, তাহলে দাঁড়িয়ে কেবলামুখী হয়ে নামায আদায় করবে। যদি দাঁড়িয়ে নামায পড়া সম্ভব না হয়, তাহলে হেলান দিয়ে নামায আদায় করবে।

যদি কেবলামুখী হয়ে রুকু সেজদা করে নামায আদায় করা না যায়, তাহলে নামায ইশারায় আদায় করবে।

তবে কিবলামুখী হওয়া এবং কিয়াম ও রুকু সেজদা না করা না যায়, তাহলে যেভাবেই হোক ইশারায় নামায পড়ে নিবে। কিন্তু পরবর্তীতে উক্ত নামায পুনরায় পড়া আবশ্যক।

عن عمران بن حصين رضى الله عنه قال: كانت بى بواسير، فسألت النبى صلى الله عليه وسلم عن الصلاة، فقال: صل قائما، فإن لم تستطع فقاعدا، فإن لم تستطع فعلى جنب (صحيح البخارى، كتاب الصلاة، باب إذا لم يطق قاعدا صلى على جنب، النسخة الهندية-1\150، رقم-1117)

ومنها القيام لقادر عليه،

فلو عجز حقيقة وهو ظاهر أو حكما كما لو حصل له به ألم شديد، أو خاف زيادة المرض ….. فإنه يسقط (رد المحتار، كتاب الصلاة، باب صفة الصلاة-2\131-133)

ولو كان على الدابة يخاف النزول للطين والردغة يستقبل، قال فى الظهيرية: وعندى هذا إذا كانت واقفة، فإن كانت سائرة يصلى حيث شاء، (فتحر القدير، كتاب الصلاة، باب شروط التى تتقدمها، زكريا-1\276، كوته-1\236، دار الفكر مصرى-1\270)

فعلم منه أن العذر إن كان من قبل الله تعالى لا تجب الإعادة، وإن كان من قبل العبد وجبت الإعادة (البحر الرائق، كتاب الطهارة، باب التيمم، زكريا-1\248، كوئته-1\142) – সূত্র, আহলে হক মিডিয়া।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here