জিততে মরিয়া ব্রাজিল

0
34
(দিনাজপুর২৪.কম) প্রথম দুই ম্যাচ জিতে এরই মধ্যে শেষ ষোলোয় পৌঁছে গেছে ব্রাজিল। ক্যামেরুনের বিপক্ষে ‘জি’ গ্রুপে নিজেদের শেষ ম্যাচটি পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নদের জন্য শুধুই নিয়ম রক্ষার। ড্র তো বটেই, হারলেও গ্রুপসেরা হওয়ার সম্ভাবনাই বেশি তিতের শিষ্যদের। তবে ম্যাচটিকে শুধুই আনুষ্ঠানিকতা হিসেবে দেখছে না ব্রাজিল। জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ার প্রতিজ্ঞা পাঁচবারের বিশ্ব বিজয়ীদের।
শুক্রবার (২ ডিবেম্বর) ‘জি’ গ্রুপে লুসাইলের আইকনিক স্টেডিয়ামে ক্যামেরুনের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবে ব্রাজিল। এই গ্রুপে দ্বিতীয় দল হিসেবে দ্বিতীয় রাউন্ডে ওঠার সুযোগ আছে বাকি তিন দলেরই। দুই খেলায় ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে ব্রাজিল। সমান ম্যাচে ৩ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে সুইজারল্যান্ড। দুই খেলায় ক্যামেরুন ও সার্বিয়ার ঝুলিতে ১ পয়েন্ট। অর্থাৎ বিশ্বকাপ রেসে থাকতে হলে এই তিনটি দলেরই জয় প্রয়োজন। তবে দ্বিতীয় সেরা হওয়ার দৌড়ে কিছুটা সুবিধাজনক জায়গায় আছে সুইজারল্যান্ড। সার্বিয়ার সঙ্গে ড্র করলেও পরবর্তী রাউন্ডের টিকেট পেয়ে যেতে পারে দলটি। এবারের বিশ্বকাপে কোনো দলেরই নিজেদের নিরাপদ ভাবার সুযোগ নেই। গ্রুপ পর্বে প্রথম দুই ম্যাচে সবচেয়ে বেশি দাপট দেখিয়েছে ফ্রান্স। কিন্তু সর্বশেষ ম্যাচে তিউনিসিয়ার কাছে ১-০ ব্যবধানে হেরেছে গতবারের চ্যাম্পিয়নরা। ওই ম্যাচে তুলনামূলকভাবে একটু কম শক্তির দল নিয়ে খেলে ফরাসিরা।

নকআউট পর্বের আগে মোমেন্টাম নষ্ট করতে চায় না ব্রাজিল। শতভাগ জয়ের রেকর্ড নিয়েই নকআউট মিশন শুরু করতে চায় ব্রাজিল। দলটির মিডফিল্ডার ফ্যাবিনহো বলেন, ব্রাজিলের জার্সি পরে যারা মাঠে নামে তাদের সবার লক্ষ্য এক। খেলতে নামে জয়ের জন্য। প্রতিপক্ষ কে সেসব বিবেচনা নয়। আমাদের একমাত্র লক্ষ্য জয়। ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করা। তবে ২০০৬ সালের পর থেকে এ পর্যন্ত কিন্তু কোনো আসরে ৯ পয়েন্ট নিয়ে গ্রুপ পর্ব শেষ করতে পারেনি ব্রাজিল। 

ব্রাজিলের জার্সি পরা মানে মান ধরে রাখার একটা বাড়তি চাপ কাজ করে। এই ধারণার সঙ্গে মোটেও একমত নন ফ্যাবিনহো। তার কথায়, এমন বক্তব্যের সঙ্গে আমি কোনোভাবইে একমত নই। বিশ্বকাপ খেলাটা যেকোনো প্লেয়ারের জন্যই একটা স্বপ্নের মতো। আর এই স্বপ্নপূরণের জন্য কোন ধরনের দায়িত্ব পালন করতে হবে, সেটা আমরা জানি। দলের পারফরম্যান্স নিয়ে উদ্বেগ থাকতেই পারে। এটাকে আমরা চাপ হিসেবে দেখি না।’
ঐতিহ্যে-গুণে-মানে-অর্জনে আফ্রিকান অদম্য সিংহখ্যাত ক্যামেরুনের চেয়ে ঢের এগিয়ে ব্রাজিল। ১৯৯০-এর বিশ্বকাপের পর এখন পর্যন্ত দ্বিতীয় রাউন্ডের নাগাল পায়নি ক্যামেরুন। দলটির বিশ্বকাপ ইতিহাসে গ্রুপ পর্বের শেষ ম্যাচে জয়ের কোনো রেকর্ড নেই। বিপরীতে বিশ্বকাপ গ্রুপ পর্বে টানা ১৭ ম্যাচ অপরাজিত ব্রাজিল। র‌্যাংকিংয়ে ক্যামেরুনের অবস্থান ৪৩ নম্বরে। আর ব্রাজিল নাম্বার ওয়ান। তবে এবারের আসরে র‌্যাংকিংয়ের হিসাব-নিকাশ পাল্টে যাচ্ছে প্রতিনিয়তই। যার সর্বশেষ শিকার গতবারের চ্যাম্পিয়ন ফ্রান্স। জয়ের স্বাদ নিয়ে নকআউট মিশন শুরু করার চ্যালেঞ্জ নেইমারবিহীন ব্রাজিলের। -নিউজ ডেস্ক
মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here