দিনাজপুর বিরলে দুই পুত্র সন্তানকে বিষ খাইয়ে হত্যা করল ঘাতক পিতা

0
42

মোস্তাফিজুর রহমান (দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডট কম) দিনাজপুর বিরল উপজেলার দুই পুত্র সন্তানকে বিষ খাওয়াইয়া হত্যা করল ঘাতক পিতা। জানা যায় স্ত্রী তালাক দেয়ার জেরে দুই পুত্র সন্তানকে বিষ খাওয়াইয়ে হত্যার পর পিতা নিজেই অভিভাব কে মুঠোফোনে হত্যার কথা জানিয়ে নিখোঁজ পিতা।আজ শুক্রবার সকালে অভিভাবকদের সংবাদের ভিত্তিতে ওই দুই শিশু ইমন (৭) ও ইমরান (৩)এর মরদেহ উদ্ধার করেছে বিরল থানা পুলিশ। ঘটনাটি ঘটেছে, দিনাজপুরের বিরল উপজেলার। শংকরপুর এলাকার নিজ বাড়ি থেকে প্রায় আড়াই কিলো মিটার দূরে ৭ নং বিজোড়া ইউনিয়নের ভবানীপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় চত্বর থেকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে। মরদেহ ময়না তদন্তের জন্যে দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠিয়েছে।ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বিরল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (তদন্ত) মোঃ আবু বককর সিদ্দিক জানান ,গেলো বৃহস্পতিবার রাতের কোন এক সময়ে দুই সন্তানকে হত্যা করে বাড়ীতে স্বজনদের কাছে মোবাইল ফোনে খবর জানিয়ে নিখোজ রয়েছে ঘাতক পিতা শরিফুল ইসলাম(৩০) বিরলের শংকরপুর গ্রামের মোঃ রফিকুল ইসলামের ছেলে। পেশায় সে কৃষিজীবী। তবে,মাঝে মাঝে আইনক্রিম ফেরি করে বেড়াতেন। প্রায় আড়াই মাস আগে তার স্ত্রী উর্মি বেগম (২২) স্বামী শরিফুলকে তালাক দিয়ে রাজধানী ঢাকায় পোষাক তৈরির কারখানায় কাজ নিয়েছে। শীতের পোষাক কিনে দেওয়ার কথা বলে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার দুই ছেলেকে নিয়ে বাড়ি থেকে বের হন পিতা শরিফুল ইসলাম। রাতে বাড়ীতে মুঠোফোনে সে জানায়,বিষ প্রয়োগে দুই ছেলেকে হত্যা করে লাশ ভবানীপুর স্কুলে ফেলে রেখেছে সে। স্থানীয়রা জানান,স্বামী স্ত্রীর মধ্যে তালাকের পর দাদা রফিকুল ইসলাম এবং দাদী আছিয়ানা বেগম দেখাশোনা করতেন দুই নাতীকে। এখনো শরিফুলের কোনো সন্ধান পাইনি বলে জানান পরিবার।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here