নারী এশিয়া কাপ : শ্রীলংকার কাছে হেরে বিপদে বাংলাদেশ

0
65

(দিনাজপুর২৪.কম) নারী এশিয়া কাপে শ্রীলংকার বিপক্ষে ডার্কওয়ার্থ-লুইস পদ্ধতিতে ৩ রানে হেরেছে বাংলাদেশ। এই পরাজয়ে সেমিফাইনালে ওঠার লড়াই কঠিন হয়ে পড়ল নিগার সুলতানাদের।

আগামী মঙ্গলবার আরব আমিরাতের বিপক্ষে শেষ ম্যাচে বাংলাদেশের জিতলেই হবে না, তাকিয়ে থাকতে হবে থাইল্যান্ডের শেষ ম্যাচের ফলের দিকেও।

বৃষ্টি আইনে ৭ ওভারে বাংলাদেশের সামনে ৪১ রানের লক্ষ্য দাঁড়ায়। তবে ৭ উইকেট হারিয়ে ৩৭ রানে থামে বর্তমান চ্যাম্পিয়নরা। জবাবে ব্যাট করতে নেমে নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় বাংলাদেশ। অধিনায়ক নিগার ছাড়া কেউই দুই অঙ্কের ঘরে পৌঁছাতে পারেননি। তিনি ১১ বলে ১২ রান করেন।
লংকান বোলার ইনোকা রানাভেরা প্রায় একাই ধসিয়ে দেন বাংলাদেশের ইনিংস। তিনি ২ ওভারে ৭ রানের বিনিময়ে ৪টি উইকেট দখল করেন। ওশাদি একটি উইকেট পান।

এর আগে সোমবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে টস জিতে ফিল্ডিং নেয় বাংলাদেশ। জাহানারা আলম প্রথম ওভারে বল হাতে নিয়ে পেলেন উইকেট। দ্বিতীয় ওভারের শেষ বলে তিনি প্রতিপক্ষ অধিনায়ক চামারি আতাপাত্তুকে (১) বোল্ড করেন। ৬ রানে প্রথম উইকেট পেল বাংলাদেশ।

প্রথম উইকেট হারানো শ্রীলংকাকে উদ্ধার করছিলেন হার্শিথা সামারাবিক্রমা ও আনুশকা সঞ্জীবনী। ২৫ রানের এই জুটি ভেঙে দিয়ে দারুণ ব্রেক থ্রু আনলো বাংলাদেশ। সানজিদা আক্তার মেঘলার করা ইনিংসের অষ্টম ওভারের শেষ বলে হার্শিথা ১৮ রানে নিগার সুলতানা জ্যোতির হাতে ক্যাচ দেন।পরের ওভারে রুমানা আহমেদ প্রথমবার বল হাতে নিয়েই উইকেটের দেখা পান। আনুশকাকে (৮) মুর্শিদা খাতুনের ক্যাচ বানান তিনি।

৩১ রান থাকতেই পরপর দুই উইকেট হারিয়ে বিপদে পড়েছিল শ্রীলঙ্কা। সেই ধাক্কা তারা কাটিয়ে উঠছিল হাসিনি পেরেরা ও নিলাকশি ডি সিলভার জুটিতে। তাদের জুটি ২৯ রানের বেশি হতে দেয়নি বাংলাদেশ। ফাহিমা খাতুনের বলে সোবহানা মোস্তারির ক্যাচ হন হাসিনি (১১)। ৬০ রানে শ্রীলঙ্কার চতুর্থ উইকেট পড়ল।

১৮তম ওভারের তৃতীয় বলে কাভিশা দিলহারিকে ঘরে ফিরিয়ে দ্বিতীয় উইকেট তুলে নেন রুমানা আহমেদ। লংকান ব্যাটসম্যান দলীয় ৭৭ রানে সোবহানা মোস্তারির ক্যাচ হন। ১১ রান করেন তিনি।

১৯তম ওভারের প্রথম বলে মিডউইকেট দিয়ে ফ্লিক করে জাহানারা আলমকে চার মারেন নিলাকশি ডি সিলভা। এরপরই নামে বৃষ্টি। ততক্ষণে তাদের স্কোর ৫ উইকেটে ৮৩। পরে লংকানরা আর মাঠে নামতে পারেনি। -ডেস্ক রিপোর্ট

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here