পদত্যাগপত্র পাঠালেন প্রতিমন্ত্রী মুরাদ হাসান

0
37
ডা. মুরাদ হাসান

(দিনাজপুর২৪.কম) নিজ দপ্তরে পদত্যাগপত্র পাঠালেন আলোচিত তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী ডা. মুরাদ হাসান। মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে সচিবালয় সংশ্লিষ্ট সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

অশালীন, শিষ্টাচারবহির্ভূত ও নারীর প্রতি চরম অবমাননাকর বক্তব্য দেওয়ায় মঙ্গলবারের মধ্যে মুরাদকে পদত্যাগ করতে বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সোমবার রাতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের এ কথা জানান।

তবে এ বিষয়ে মুরাদের মন্তব্য পাওয়া যায়নি। এরপর তিনি সচিবালয়ের দপ্তরেও যাননি, মঙ্গলবার দুপুরে ই-মেইলে পদত্যাগ পাঠান।

সম্প্রতি এক ফেসবুক লাইভে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার নাতনি ও দলটির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারপারসন তারেক রহমানের কন্যা জাইমা রহমানকে নিয়ে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেন মুরাদ। এ ঘটনায় মিডিয়া ও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে নারীর প্রতি অসৌজন্যমূলক ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যের প্রতিবাদে সমালোচনা শুরু হয়।

এ পরিস্থিতিতেই গত রবিবার নায়িকা মাহিয়া মাহিকে কেন্দ্র করে ডা. মুরাদ হাসানের সঙ্গে ঢালিউড তারকা মামনুন ইমনের একটি অডিও ক্লিপ ফাঁস হয়। অডিও ক্লিপে ইমনের ফোনে মাহিকে অত্যন্ত কুরুচিকর ভাষায় অশালীন প্রস্তাবের পাশাপাশি তাকে (মাহিকে) উঠিয়ে নিয়ে আসার হুমকি দেন মুরাদ।

আরো পড়ুন : মুরাদকে দল থেকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত কার্যনির্বাহী সভায় : হানিফ

এ সব ঘটনায় সোমবার সাংবাদিকেরা সেতুমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরে কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বিষয়টি তিনি প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করবেন।

পরে এদিন রাতেই ওবায়দুল কাদের জানান, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অসৌজন্যমূলক বক্তব্য দেওয়ায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা মঙ্গলবারের মধ্যে ডা. মুরাদ হাসানকে মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করতে বলেছেন। ডা. মুরাদ হাসান একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জামালপুর-৪ আসন থেকে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন। ২০০৮ সালেও তিনি একই আসনে থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ২০১৯ সালে সরকার গঠনের সময় মুরাদ হাসানকে স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রীর দায়িত্ব দেওয়া হয়। পরে ৫ মাসের মাথায় ওই বছরের ১৯ মে তার দফতর পরিবর্তন করে তথ্য প্রতিমন্ত্রী করা হয়। -অনলাইন ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here