পুলিশের ওপর জনগণের আস্থা ধরে রাখতে হবে: প্রধানমন্ত্রী

0
26
পুলিশ সপ্তাহ-২০২৩ উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য দিচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ছবি: পিআইডি

(দিনাজপুর২৪.কম) প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, জীবনবাজি রেখে পুলিশ সদস্যরা দেশের জন্য দায়িত্বপালন করেন। যেকোনো দুর্যোগে পুলিশ মানুষের পাশে থাকে। পুলিশের ওপর জনগণের যে আস্থা তৈরি হয়েছে সেটা ধরে রাখতে হবে।

আজ মঙ্গলবার পুলিশ সপ্তাহ-২০২৩ উপলক্ষে রাজারবাগ পুলিশ প্যারেড মাঠে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘জঙ্গিবাদের হাত থেকে আমরা দেশকে রক্ষা করেছি। জঙ্গি, সন্ত্রাস ও মাদক প্রতিরোধেও পুলিশ ভূমিকা রাখছে। জনগণের পুলিশ হিসেবেই জনগণের সেবা দিচ্ছে পুলিশ। মনুষ্যসৃষ্ট দুর্যোগ প্রতিরোধে ভূমিকা রাখছে পুলিশ। ২০১৩-১৪ সালে অগ্নিসন্ত্রাসে পুলিশও রেহাই পায়নি। নির্দয়ভাবে পুলিশকে হত্যা করেছে বিএনপি-জামায়াত। জীবনবাজি রেখে ধ্বংসাত্মক কাজ প্রতিরোধ করে মানুষের জানমাল রক্ষায় ভূমিকা রাখে পুলিশ সদস্যরা। এমন ধ্বংসাত্মক পরিস্থিতি বাংলাদেশে যেন আর না ঘটে।’

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘দেশকে অর্থনৈতিকভাবে শক্তিশালী করার পাশাপাশি পুলিশের আধুনিকায়নেও ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। পুলিশকে আরও গতিশীল করতে ত্রিমাত্রিক বাহিনীতে রূপ দেওয়ার প্রক্রিয়া চলছে। স্মার্ট পুলিশ বাহিনী গড়ে তোলা হবে।’

পুলিশের জন্য রাশিয়া থেকে দুটি হেলিকপ্টার ক্রয়ের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে জানিয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ‘প্রত্যেক বিভাগে পুলিশের জন্য হাসপাতাল নির্মাণের পদক্ষেপ নিয়েছি। যাতে পুলিশ সদস্যরা বিভাগীয় পর্যায়ে সহজে উন্নত চিকিৎসা নিতে পারে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আমাদের পুলিশ বাহিনী জনগণের পুলিশ হিসেবে সেবা দিয়ে যাচ্ছে। জনগণের মনে পুলিশ সম্পর্কে যে আস্থা অর্জন হয়েছে তা যেন অক্ষুণ্ণ থাকে।’

করোনা মহামারি চলাকালীন জীবনের ঝুঁকি নিয়ে মানুষের সেবায় আত্মনিয়োগ করায় পুলিশ বাহিনীকে ধন্যবাদ জানান প্রধানমন্ত্রী।

বক্তব্য দেওয়ার আগে প্রধানমন্ত্রী বিপিএম-পিপিএম প্রাপ্ত পুলিশ সদস্যদের পদক পরিয়ে দেন। ২০২২ সালে ভালো কাজের স্বীকৃতিস্বরূপ ১১৫ পুলিশ কর্মকর্তা এ পদক পান। -ডেস্ক রিপোর্ট

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here