প্রথম ভারতীয় জিতলেন বুকার পুরস্কার

0
62
(দিনাজপুর২৪.কম) প্রথম ভারতীয় লেখক হিসেবে মর্যাদাপূর্ণ আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেয়েছেন গীতাঞ্জলি শ্রী। সেই সঙ্গে ভারতীয় ভাষায় লেখা বই প্রথম আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার জিতল।
গীতাঞ্জলি শ্রীর হিন্দি ভাষায় লেখা উপন্যাস ‘রেত সামাধি’ উপন্যাসের অনুবাদ ‘টোম্ব অব স্যান্ড’ এর জন্য বুকার পুরস্কার পেলেন তিনি। ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম এনডিটিভির এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।
‘রেত সামাধি’উপন্যাসের কাহিনী আবর্তিত হয়েছে ৮০ বছরের এক নারীকে কেন্দ্র করে। মূলত ভারতের ঔপনিবেশিক শাসন ও দেশ ভাগ উঠে এসেছে এ উপন্যাসে। এ উপন্যাসটি হিন্দি ভাষার প্রথম বই হিসেবে বুকার পুরস্কারের জন্য মনোনীত সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা করে নেয়।
বুকার পুরস্কারের বিচারকরা জানিয়েছেন, এ উপন্যাসটি বইটি এক মুহূর্তের জন্য টেবিলের নিচে রাখা যায় না
বৃহস্পতিবার (২৬ মে) লন্ডনে বুকার পুরস্কার গ্রহণ করেন গীতাঞ্জলি। এ পুরস্কারের অর্থমূল্য ৫০ হাজার পাউন্ড যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় ৫০ লাখ রুপি। তার সঙ্গে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন ডেইজি রকওয়েল যিনি উপন্যাসটি ইংরেজিতে অনুবাদ করেছেন। তিনিও পুরস্কার গীতাঞ্জলির সাথে ভাগ করে নেন।
পুরস্কার গ্রহণের সময় তিনি বলেন, আমি কখনই বুকারের স্বপ্ন দেখিনি। কখনও ভাবিনি আমি এ পুরস্কার পাবো। এ এক বিশাল স্বীকৃতি। আমি বিস্মিত, আনন্দিত, সম্মানিত এবং বিনীত বোধ করছি।’ তিনি আরও বলেন, পুরস্কার পেলে বিষণ্ণ তৃপ্তি কাজ করে। রেত সমাধি আমাদের চারপাশের বসবাস জগতকে তুলে ধরে। এই বইটির পিছনে রয়েছে হিন্দি এবং অন্যান্য দক্ষিণ এশীয় ভাষার সমৃদ্ধ এবং বিকাশমান সাহিত্য ঐতিহ্য। এ ভাষার সেরা লেখকদের সম্পর্কে জানার জন্য বিশ্বসাহিত্য আরও সমৃদ্ধ হবে।’
৬৪ বছর বয়সী গীতাঞ্জলি দিল্লির বাসিন্দা। মূলত ২০১৮ সালে সালে হিন্দিতে প্রকাশিত, ‘টোম্ব অফ স্যান্ড’ গীতাঞ্জলির প্রথম বই। ২০২১ সালে আগস্টে টিল্টেড এক্সিস প্রেস এ উপন্যাস ইংরেজিতে যুক্তরাজ্যে প্রকাশ করে। -অনলাইন ডেস্ক
মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here