বিকাশ, নগদ ও রকেট থেকে অর্জিত ইন্টারেস্ট ও ক্যাশব্যাক এর শরয়ি বিধান!

0
73

(দিনাজপুর২৪.কম) বর্তমানে আমাদের অনেকের মোবাইলে বিকাশ একাউন্ট আছে।এর মাধ্যমে আমরা টাকা লেনদেন করে থাকি। অনেক সময় দেখা যায় বিকাশ এর পক্ষ থেকে ইন্টারেস্ট হিসাবে কিছু টাকা এসে একাউন্টে যোগ হয়। আবার অনেক সময় দেখা যায় বিকাশের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হয় যে, ১০০ টাকা অ্যাপ থেকে রিচার্জ করলে ২০ টাকা ফেরত দেওয়া হবে। আবার অনেক সময় দেখা যায় পণ্য ক্রয় করে বিকাশের মাধ্যমে টাকা পেমেন্ট করলে কিছু টাকা ফেরত দেওয়া হয়।

এখন আমার জানার বিষয় হলো, এই টাকার হুকুম কী? এসব টাকা আমাদের জন্য বৈধ হবে কি? মাঝে মাঝে একাউন্টে এসে যে টাকা যোগ হয় সেটা কি ইন্টারেস্ট? এর বৈধতা আছে কি? ২)বিকাশ এজেন্টদেরকে বিকাশ কোম্পানির পক্ষ থেকে ক্যাশইন ও ক্যাশ আউট এর উপর ভিত্তি করে নির্দিষ্ট হারে কিছু ক্যাশব্যাক দেওয়া হয়। যেমন ২০,০০০/= টাকা ক্যাশ ইন বা ক্যাশ আউট করলে ১২.৫ টাকা ক্যাশব্যাক দেওয়া হয়। আর এ ক্যাশব্যাকের সাথে কমিশনের কোনো সম্পর্ক নেই।

উল্লেখ্য, উক্ত ক্যাশব্যাক সহসা দেওয়া হয়—ব্যাপারটা এমন নয়।বরং আগে থেকে ক্যাশব্যাক এর হার জানা থাকে। তো এ ক্যাশব্যাকের বিধান কী ?

প্রশ্নকারী- হাফেজ মাও.ফয়েজ আহমদ রামপ্রসাদী, শিক্ষাসচিব: রামপ্রসাদ ইসলামিয়া মাদরাসা

#উত্তর: ক. নগদ, রকেট ও বিকাশ এর পক্ষ থেকে ইন্টারেস্ট হিসাবে যে টাকা পার্সোনাল ওয়ালেট/এজেন্ট ওয়ালেটে যোগ হয়,সেটা সুদ।আর সুদ খাওয়া হারাম।

খ. বিকাশের পক্ষ থেকে ঘোষণা দেওয়া হলো যে, ১০০ টাকা বিকাশ অ্যাপ থেকে রিচার্জ করলে ২০ টাকা ক্যাশব্যাক/ফেরত দেওয়া হবে।এই ক্যাশব্যাক সুদ।

কারণ বিকাশ কোম্পানিতে ওয়ালেট/অ্যাকাউন্ট ওপেন করার মধ্য দিয়ে বিকাশ কোম্পানি ইসলামি শরিয়াহ এর দৃষ্টিতে “মুস্তাকরিজ” বা ঋণগ্রহীতা হয়।আর “মুস্তাকরিজ” থেকে শর্তের ভিত্তিতে কিংবা প্রচলনের (উরফ) ভিত্তিতে কোনো ধরনের প্রফিট কনজিউম/ভোগ করলে সেটা সুদ হয়। এজন্য এধরনের ক্যাশব্যাক ভোগ করা থেকে অবশ্যই বেঁচে থাকতে হবে।কারণ সুদ ইসলামে হারাম।

গ. পণ্য ক্রয় করে বিকাশের মাধ্যমে বিল পেমেন্ট করলে যে ক্যাশব্যাক দেওয়া হয় সেটা সুদ।কারণ এই ক্যাশব্যাক পণ্য বিক্রেতা দেয় না।বরং বিকাশ কোম্পানির পক্ষ থেকে দেওয়া হয়।আর উপরে উল্লেখ করা হয়েছে যে,বিকাশ কোম্পানিতে ওয়ালেট/অ্যাকাউন্ট ওপেন করার মধ্য দিয়ে বিকাশ কোম্পানি ইসলামি শরিয়াহ এর দৃষ্টিতে “মুস্তাকরিজ” বা ঋণগ্রহীতা হয়।আর “মুস্তাকরিজ” থেকে শর্তের ভিত্তিতে কিংবা প্রচলনের (উরফ) ভিত্তিতে কোনো ধরনের প্রফিট কনজিউম/ভোগ করলে সেটা সুদ হয়।এজন্য পণ্য ক্রয় করে বিকাশের মাধ্যমে বিল পেমেন্ট করার কারণে যে ক্যাশব্যাক অর্জিত হয়, সেটা সুদ।

২) প্রশ্নোল্লিখিত ক্যাশব্যাক সুদের অন্তর্ভুক্ত। এজন্য এটা ভোগ করা যাবে না।

উত্তর প্রদানে
আবদুর রহমান হোসাইনী
জামিয়া শায়খ যাকারিয়্যা ঢাকা

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here