বিপদমুক্ত সালমান, বললেন ‘বাঘ ও সাপ দুই বেঁচে আছে’

0
64

(দিনাজপুর২৪.কম) খামারবাড়িতে সাপের ছোবল খাওয়ার পর সোমবার জন্মদিনের সকালে মুখ খুললেন বলিউড অভিনেতা সালমান খান। আপাতত ঝুঁকিমুক্ত বলিউডের ভাইজান। হাসপাতাল থেকে তাকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।

শনিবার দিবাগত রাতে মুম্বাইয়ের উপকণ্ঠে পানভেলের খামারবাড়িতে সময় কাটাচ্ছিলেন অভিনেতা। সেখানে একটি বিষধর সাপ  তাকে দংশন করে। দ্রুত অভিনেতাকে নিয়ে যাওয়া হয় নভি মুম্বাইয়ের এক হাসপাতালে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসার পর রবিবার সন্ধ্যায় ছেড়ে দেওয়া হয় তাকে। হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, আপাতত তিনি স্থিতিশীল। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, সাপটি বিষধর নয়।

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়ে পরিবার ও কাছের বন্ধু বান্ধবদের সাথে নিজের ৫৬তম জন্মদিন পালন করতে খামারবাড়ি গিয়েছেন সালমান খান। সোমবার সকালে গণমাধ্যমকে দেওয়া বার্তায় ভাইজান বলেন, সাপটি খামারবাড়ির একটি ঘরে প্রবেশ করলে বাকিদের রক্ষা করার কথা ভেবে সাপটিকে সরাতে চায় সালমান খান। ওই সময়েই সাপ ছোবল মারে তাকে।

এ ঘটনার পর চিন্তার পরে যায় তার স্বজন,বন্ধু ও ভক্তরা। এরপর পর বাবা সেলিম খানের সাথে কথা বলে সালমান বলেন, ‘বাঘ ও সাপ দুই ভালো আছে।’ ওই ঘটনার সাপটিকে জঙ্গলে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বলিউডের ব্লকবাস্টার সিনেমা এক থা টাইগার ও টাইগার জিন্দা হ্যায় সিনেমায় অভিনয়ের পর সবার কাছে টাইগার নামেই পরিচিত সালমান খান।

সময় পেলেই পানভেলের ফার্মহাউসে চলে যান সালমান খান। এমনকি, পরপর দুবার করোনার জন্য চলা লকডাউনেও সেখানেই ছিলেন তিনি। শুটিংয়ের ব্যস্ততা না থাকলেও শহুরে কোলাহল থেকে দূরে এই খামারবাড়িতেই সময় কাটাতে ভালোবাসেন ভাইজান। সেখানে পালিত পশুদের সঙ্গে সময় কাটানো, ক্ষেতে চাষ করার মতো কাজ করে থাকেন তিনি। একাধিক ছবিও সুপারস্তার শেয়ার করেন ফার্ম হাউস থেকে। বড়দিন উপলক্ষেই গিয়েছিলেন এবার।

প্রসঙ্গত, নতুন বছরেই টাইগার-৩-এর শুটে দিল্লি যাওয়ার কথা রয়েছে তার। ক্যাটরিনাকে সঙ্গে নিয়ে সেখানে দিন পনেরো ধরে করবেন শুট। শুধু তাই নয়, শোনা যাচ্ছে এর মাঝে সেখানে হাজির হওয়ার কথা রয়েছে শাহরুখেরও। সালমানের ছবিতে গেস্ট অ্যাপিয়ারেন্স করবেন শাহরুখ খান। এ ছাড়া তার হাতে আছে ‘কাভি ঈদ কাভি দিওয়ালি’, ‘কিক টু’ ছবি দুটি। তাকে দেখা যাবে আমির খান অভিনীত ‘লাল সিং চাড্ডা’ ছবিতেও। অনলাইন ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here