বিরামপুরে স্ত্রীকে গরম পানিতে ঝলসে দেওয়ায় স্বামী গ্রেফতার

0
81
-ছবি প্রতীকি

মোঃ নজরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) বিরামপুর উপজেলার কেশবপুর গ্রামে পরম পানি ঢেলে দিয়ে স্ত্রীকে ঝলসে দেওয়ার মামলায় পুলিশ স্বামীকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার (২৯ মার্চ) দিনাজপুর আদালতে সোপর্দ করেছে।
থানার মামলা সূত্রে প্রকাশ, উপজেলার কেশবপুর গ্রামের আব্দুল জব্বারের ছেলে ইছাহাক আলীর সাথে প্রায় ২৫ বছর পূর্বে দক্ষিণ রামচন্দ্রপুর গ্রামের আলিমদ্দিনের মেয়ে রাজিয়া সুলতানার বিয়ে হয়। তাদের তিনটি সন্তানও রয়েছে। সংসার জীবনে ইছাহাক আলী তার পিতা মাতার প্ররোচনায় স্ত্রী রাজিয়া সুলতানাকে প্রায়শই শারিরীক ও মানসিক ভাবে নির্যাতন করে আসছিল। গত রবিবার (২৭ মার্চ) রাজিয়া সুলতানা রান্নার কাজ করার সময় স্বামী ইছাহাক আলী স্ত্রীকে গালাগালি ও মারপিট করার এক পর্যায়ে স্ত্রীর শরীরে গরম পানি ঢেলে দেয়। এতে রাজিয়া সুলতানার বাম হাত, বাম পা ও বুক ঝলসে যায়। খবর পেয়ে রাজিয়া সুলতানার পিতা আলিমদ্দিন মেয়েকে উদ্ধার করে বিরামপুর হাসপাতালে নিলে ঝলসানোর পরিমাণ বেশি হওয়ায় তাকে দিনাজপুর এম, আব্দিুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাটানো হয়। বর্তমানে রাজিয়া সুলতানা সেখানে চিকিৎসাধীন রয়েছে।
থানার ওসি সুমন কুমার মহন্ত জানান, এঘটনায় রাজিয়া সুলতানার পিতা আলিমদ্দিন সোমবার (২৮ মার্চ) বিরামপুর থানায় ইছাহাক আলী ও তার পিতা-মাতার বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেছেন।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা থানার উপ-পরিদর্শক এরশাদ মিয়া জানান, মামলার পর প্রধান আসামী ইছাহাক আলীকে গ্রেফতার করে মঙ্গলবার দিনাজপুর আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here