বিরামপুরে ৭৫০ বিঘা জমিতে আগাম জাতের পেঁয়াজ রোপন হচ্ছে

0
58
Exif_JPEG_420

মোঃ নজরুল ইসলাম (দিনাজপুর২৪.কম) দিনাজপুরের বিরামপুর উপজেলায় চাহিদা মোচন ও আবাদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে এবার ৭৫০ বিঘা জমিতে আগাম জাতের হাইব্রিড জাতের পেঁয়াজ রোপন করা হচ্ছে। এর মধ্যে সরকারি ভাবে কৃষি প্রণোদনার আওতায় কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ ১৫০ বিঘা জমিতে রোপনের লক্ষ্যে ১৫০ জন কৃষককে রবিবার (১৬ অক্টো:) বিনামূল্যে সার ও বীজ বিতরণ করেছে।
উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ নিকছন চন্দ্র পাল জানান, পেঁয়াজ রোপনের মূল মৌসুম আসার আগেই বাজারে পেঁয়াজের চাহিদা পুরণ ও আবাদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে উপজেলার কৃষকরা আগাম জাতের পেঁয়াজ রোপনের জন্য জমি তৈরি করতে শুরু করেছে। কৃষকদের আবাদ বৃদ্ধির লক্ষ্যে কৃষি সম্প্রসারণ বিভাগ এবার উপজেলার ১৫০জন কৃষককে ১ বিঘা করে জমিতে রোপনের জন্য ১ কেজি পেঁয়াজ বীজ, ২০ কেজি এমওপি, ২০ কেজি ডিএপি এবং আনুসাংগিক উপকরণ বিনামূল্যে বিতরণের মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ করছে। এছাড়া ব্যক্তি পর্যায়ে উপজেলার বিভিন্ন এলাকায় কৃষকরা আরো ৬০০ বিঘা জমিতে আগাম জাতের পেঁয়াজ রোপন করছে। এই ৭৫০ বিঘা জমিতে আগাম জাতের পেঁয়াজ উৎপাদিত হলে বাজার চাহিদা পুরণ হবে এবং কৃষকরাও লাভবান হবেন।
উপজেলা অডিটরিয়ামে রবিবার (১৬ অক্টো:) পেঁয়াজ বীজ, রাসায়নিক সার ও অন্যান্য উপকরণ বিতরণ করা হয়েছে। এতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার পরিমল কুমার সরকারের সভাপতিত্বে কৃষক উদ্বুদ্ধ করণ সভায় বক্তব্য রাখেন, পৌর মেয়র অধ্যক্ষ আক্কাস আলী, উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান উম্মে কুলসুম বানু ও মেজবাউল ইসলাম, উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা কৃষিবিদ নিকছন চন্দ্র পাল, উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক মোস্তাফিজুর রহমান, চরকাই খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজেদুর রহমান, সিনিয়র সাংবাদিক মোরশেদ মানিক প্রমূখ। একই স্থানে অতিথিবৃন্দ জাতীয় ইঁদুর নিধন অভিযানের উদ্বোধন এবং বিশ্ব খাদ্য দিবসের কর্মসূচি পালন করেন।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here