বুড়িগঙ্গায় আ. লীগ নেতার লাশ, ময়নাতদন্ত শেষে যা বললেন চিকিৎসক

0
57
দুরন্ত বিপ্লবের ময়নাতদন্ত শেষে সাংবাদিকদের কাছে বিবৃতি দিচ্ছেন চিকিৎসক। ছবি: সংগৃহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) বুড়িগঙ্গা নদী থেকে উদ্ধার হওয়া জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় (জাবি) শাখা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও আওয়ামী লীগের কৃষি ও সমবায় উপকমিটির সদস্য দুরন্ত বিপ্লবের (৫১) মরদেহের ময়নাতদন্ত সম্পন্ন হয়েছে। তার মাথার পেছনে আঘাত করা হয়েছিল বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।

আজ রোববার সকালে মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার মফিজ উদ্দিন প্রধান নিপুণ বলেন, ‘আমরা বিপ্লবের মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষ করেছি। তার মাথার পেছনে সমান কিছু দিয়ে আঘাত করা হয়েছে। অনেকটা জায়গায় ক্ষতচিহ্ন রয়েছে। তার বুকের দুই পাশেও আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তাকে হত্যা করা হতে পারে।’

নিহত বিপ্লবের ছোট ভাই দুর্জয় বলেন, ‘গত ৭ নভেম্বর সন্ধ্যায় কেরানীগঞ্জ থেকে মোহাম্মদপুরে মায়ের বাসায় যাওয়ার পথে আমার ভাই নিখোঁজ হন। আমরা ৯ নভেম্বর থানায় জিডি করি। গতকাল রাত ৩টার দিকে নারায়ণগঞ্জ পাগলা নৌপুলিশ ফাঁড়িতে এসে ছবি দেখে ভাইয়ের মরদেহ শনাক্ত করেছি।’

দুরন্ত বিপ্লব নেত্রকোণা জেলার পূর্বধলার ছোট ইলাশপুরের বাসিন্দা। তিনি পরিবার নিয়ে ঢাকায় বসবাস করতেন। বিপ্লব জাবি ছাত্রলীগের ১৯৯৪-১৯৯৮ পর্যন্ত সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। সর্বশেষ তিনি আওয়ামী লীগের কৃষি সমবায় বিষয়ক উপকমিটির সদস্য ছিলেন।  -নিউজ ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here