মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে কটূক্তি করা কে এই নূপুর শর্মা?

0
83

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) জাতীয় মুখপাত্রের দায়িত্বে ছিলেন নূপুর শর্মা। তার একটি বিতর্কিত মন্তব্যের পর বেশ চাপে পড়েছে নরেন্দ্র মোদি সরকার। এরই মধ্যে টিভিতে নেতাদের কথা বলতে নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে দলটি।

গত সপ্তাহে এক টেলিভিশন বিতর্কে মহানবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে নিয়ে অবমাননাকর মন্তব্যের পর কানপুরে শুরু হয় উত্তেজনা। প্রতিবাদে রাস্তায় নামেন বহু মানুষ। বিতর্কিত এই মন্তব্যের জন্য নূপুরের বিরুদ্ধে মহারাষ্ট্র ও হায়দারাবাদে একাধিক মামলা হয়েছে।

চাপে পড়ে দিল্লি বিজেপির সভাপতি আদেশ গুপ্ত জানিয়েছেন, নূপুরকে দলের প্রাথমিক সদস্যপদ থেকে সরানো হচ্ছে। দলও তাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

যদিও বিতর্কিত মন্তব্যের পর নূপুর নিঃশর্তভাবে ক্ষমা চেয়েছেন। এক টুইট বার্তায় তিনি বলেন, কারও ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত করা তার উদ্দেশ্য ছিল না।

কে এই নূপুর শর্মা

নূপুর শর্মা দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীনে হিন্দু কলেজ থেকে অর্থনীতিতে স্নাতক করেন। পরে আইনে ডিগ্রি অর্জন করেন। লন্ডন স্কুল অব ইকনমিক্স থেকে আইনে স্নাতকোত্তরও করেন তিনি। ছাত্রী থাকাকালীন রাজনীতিতে হাতেখড়ি নূপুরের। সঙ্ঘ পরিবারের ছাত্র সংগঠন এবিভিপি’র নেত্রী হিসেবে আত্মপ্রকাশ করেন। ২০০৮ সালে দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংসদের সভানেত্রী হন নূপুর শর্মা।

২০০৮ সালের ৬ নভেম্বর একটি আলোচনা সভায় নূপুরের সঙ্গে অংশ নিয়েছিলেন এসএআর গিলানি। নূপুরকে দেখা যায় বিভিন্নভাবে গিলানিকে অপদস্থ করতে। ওই সময় তার এক সঙ্গী গিলানির মুখে থুতু ছেটান। এরপরও পদোন্নতি পান নূপুর শর্মা। ভারতীয় জনতা পার্টির যুব মোর্চার জাতীয় কর্মসমিতির সদস্য হন তিনি। দিল্লি বিজেপির রাজ্য কর্ম সমিতির সদস্য পদ পান। ২০১৭ সালে দিল্লি বিজেপির জাতীয় মুখপাত্র হন নূপুর শর্মা। সূত্র-আনন্দ বাজার

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here