যা হওয়ার তা-ই হয়েছে!

0
80

(দিনাজপুর২৪.কম) জয় বা ড্রয়ের চিন্তাও বাড়াবাড়ি হতো। ২-১ কিংবা ৩-১ হারলেও কেন বড় পাওয়া হবে—গতকাল সেই প্রশ্নের উত্তরগুলো মিলিয়ে দিয়েছে ভারত। একটু ধীরে শুরু করে ক্রমে এমন চড়াও হয়েছিল তারা যে নাভিশ্বাস উঠে গিয়েছিল স্বাগতিক বাংলাদেশ দলের। এশিয়ান হকি চ্যাম্পিয়নস ট্রফিতে শেষ পর্যন্ত ৯-০ ব্যবধানে শেষ হয়েছে ম্যাচ। বাংলাদেশ গোল তো দূরের কথা, লক্ষ্যভেদের দূরতম সম্ভাবনাও তৈরি করতে পারেনি। আক্রমণে ওঠার সুযোগ পেয়েছে কালেভদ্রে। কিন্তু বল হারিয়েছে সেই আক্রমণ জমাট বাঁধার আগেই।

ভারতীয়দের চাপে ক্রমে নিচে নেমে আসতে হয়েছে পুরো দলকে। তাতে একের পর এক পেনাল্টি কর্নার আদায় করে নিয়েছে ভারত। সব মিলিয়ে ১৪টি। ৯ গোলের পাঁচটিই পিসি থেকে। চার কোয়ার্টারের প্রথম দুটি দেখে অবশ্য মনে হয়নি ব্যবধানটা এত বড় হবে। শুরুর ১১ মিনিটে আটটি পিসি আদায় করলেও গোল করতে পারেনি ভারত। বাংলাদেশ যেকোনোভাবে হোক সেগুলো ফিরিয়ে দিচ্ছিল। ১২ মিনিটে দিলপ্রিত সিং প্রথম এগিয়ে দেন ভারতকে। সেটি আবার ওপেন প্লে থেকে। পোস্টের সামনেই জটলা থেকে আলতো পুশে বল জালে জড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। প্রথম কোয়ার্টারে ব্যবধান ১-০।

দ্বিতীয় কোয়ার্টারে বাংলাদেশ আক্রমণে উঠতে গেলে ডিফেন্স ফাঁকা হয়ে যায়। সেই সুযোগে দিলপ্রিতই গোলরক্ষক আবু সাঈদকে ওয়ান অন ওয়ানে রিভার্স হিটে ব্যবধান বাড়িয়ে নিয়েছেন। এই কোয়ার্টার শেষ হওয়ার আগে আবার পিসি থেকে ললিত কুমারের গোল। হারমানপ্রিতের ফ্লিকে পোস্টের কাছে দাঁড়িয়ে কানেক্ট করে দেন তিনি।

তৃতীয় কোয়ার্টারে আরো তিন গোল হজম করে বাংলাদেশ। প্রথম দুটি পিসি থেকে। আর দুটি গোলই একটি আরেকটির কপি যেন। হারমানপ্রিত ড্র্যাগ না করে পাশে দেন জারমান প্রিতকে। জারমান জোরালো হিটে দুবারই বল জালে জড়ান। শুরুর দিকে হারমানের সরাসরি ড্র্যাগ ফ্লিকগুলো বাংলাদেশ রুখে দেওয়াতে নতুন পথ খুঁজে নেয় ভারত, সফলতা আসে তাতেই। ওদিকে ওপেন প্লেতেই দিলপ্রিত হ্যাটট্রিক পূরণ করে ফেলেন এই কোয়ার্টারের শেষ দিকে। বক্সের ভেতরে বাংলাদেশি এক ডিফেন্ডারের পাহারা এড়িয়েই বল জালে পাঠিয়েছেন তিনি। শেষ কোয়ার্টারে আকাশদীপ সিং ৭-০ করেন। এরপর পিসি থেকে হারমান ও মনদীপের আরো দুই গোল।

ম্যাচ শেষ না হলে এই গোলের ধারা যে চলতেই থাকত, তা নিয়ে সন্দেহ নেই। কারণ বাংলাদেশ পাল্টা আক্রমণের সামর্থ্যই দেখাতে পারছিল না। নিজেদের পোস্টের সামনে গোল বাঁচানোর প্রাণপণ লড়াইয়েও যে বল জালে জড়িয়ে যাচ্ছিল একের পর এক।

গতকাল তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ অপর ম্যাচে ৩-৩ গোলে ড্র করেছে জাপান ও দক্ষিণ কোরিয়া।-অনলাইন ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here