রাজশাহী বিভাগে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট চলছে

0
81
-পুরনো ছবি

(দিনাজপুর২৪.কম) রাজশাহীতে বিএনপির গণসমাবেশের দুদিন আগে থেকেই বিভাগের আট জেলায় আজ বৃহস্পতিবার ভোর থেকে অনির্দিষ্টকালের পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়েছে। সড়কে অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধসহ ১০ দফা দাবিতে এই পরিবহন ধর্মঘট শুরু হয়।

রাজশাহী পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক আজ বৃহস্পতিবার সকালে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, আজ ভোর থেকে রাজশাহীর কোনো গাড়ি ছেড়ে যায়নি। আবার জেলায় কোনো গাড়ি ঢুকতেও দেখা যায়নি। তবে বিআরটিসি বাস চলছে।

এর আগে গত শনিবার নাটোরে বিভাগীয় পরিবহন মালিক-শ্রমিক ঐক্য পরিষদের সভায় ১০ দফা দাবি আদায়ে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত আল্টিমেটাম দিয়ে ধর্মঘটের ঘোষণা দিয়েছিলেন সংগঠনটির সভাপতি সাফকাত মঞ্জুর বিপ্লব।

এ বিষয়ে সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক জানান, মহাসড়কে নছিমন, করিমন, ভটভটির মতো অবৈধ যানবাহন চলাচল বন্ধ করাসহ ১০ দফা দাবিতে আল্টিমেটাম দিয়ে ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছিল। বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে তাদের দাবি পূরণ হয়নি। এ কারণে বৃহস্পতিবার সকাল ৬টা থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে। এর আওতায় থাকবে সব যাত্রী ও পণ্যবাহী পরিবহন।

তবে বিএনপি নেতাকর্মীদের অভিযোগ, আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীতে তাদের বিভাগীয় সমাবেশে যেন নেতাকর্মীরা উপস্থিত হতে না পারে, এ কারণে ধর্মঘট ডাকা হয়েছে।

বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু জানান, ‘সমাবেশে নেতাকর্মীরা যাতে আসতে না পারে সে জন্য পরিবহন ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে।’

এদিকে এই ধর্মঘটের কারণে বিপাকে পড়েছেন দূর-দূরান্তের যাত্রীরা। একই সঙ্গে আগামী শনিবার রাজশাহীতে বিএনপির সমাবেশে যোগ দিতে আসা নেতাকর্মীরাও বিপাকে পড়েছেন। তবে পথে ভোগান্তি এড়াতে বুধবার রাতেই অনেকে সমাবেশস্থল মাদ্রাসা মাঠে চলে এসেছেন।

উল্লেখ্য, আগামী ৩ ডিসেম্বর রাজশাহীর ঐতিহাসিক মাদ্রাসা মাঠে (হাজী মুহম্মদ মুহসীন উচ্চবিদ্যালয়ের মাঠে) বিএনপির বিভাগীয় গণসমাবেশ রয়েছে। আট শর্তে তাদের সেখানে সমাবেশের অনুমতি দেওয়া হয়েছে। -নিউজ ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here