রেললাইনে দাঁড়িয়ে থাকা বাসকে ট্রেনের ধাক্কা: নিহত ২

0
21

(দিনাজপুর২৪.কম) নারায়ণগঞ্জে রেললাইনে দাঁড়িয়ে থাকা যাত্রীবাহী বাসকে  ট্রেনের ধাক্কায় ঘটনাস্থলে দুজনের মৃত্যু হয়েছে। নিহতদের একজন শিশু (৭), অপরজন অজ্ঞাত বৃদ্ধ (৭২)।

এ ছাড়া অপর একজনের কাটা পা উদ্ধার করা হয়েছে।

রোববার (২৬ ডিসেম্বর) সন্ধ্যা ৬টার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের ১ নম্বর রেলগেইট ফলপট্রি এলাকায় এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, ঢাকা থেকে ছেড়ে আসা যাত্রীবাহী ট্রেন নারায়ণগঞ্জ রেলস্টেশনের অদূরে ১ নম্বর রেল গেট (ফলপট্রি) সিগন্যাল অতিক্রমকালে যানজটের কারণে রেললাইনের ওপর দাঁড়ানো আনন্দ বাসকে দুমড়ে-মুচড়ে প্রায় ৫০ গজ দূরে নিয়ে যায়। বাসে ১২/১৩ জন যাত্রী ছিল। এরমধ্যে ঘটনাস্থলে দুজনের মৃত্যু হয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা অজ্ঞাতনামা শিশু ও বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করে। আরো ৯জন আহত হয়েছে বলে জানা গেছে। এরমধ্যে পাঁচজনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এবং অন্যান্যদের নারায়ণগঞ্জ ১ শ শয্যা (ভিক্টোরিয়া) জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিস অ্যান্ড সিভিল ডিফেন্সের নারায়ণগঞ্জের উপ-সহকারী পরিচালক আব্দুল্লাহ আল আরেফীন বলেন, আমরা উদ্ধার কাজ করছি। হতাহতদের পরিচয় জানার চেষ্টা চলছে।

ঘটনার প্রত্যক্ষদর্শী শাহজাহান জানায়, যানজটের কারণে লাইনম্যান সিগনাল ব্যারিয়ার না ফেলার কারণে বাসটি রেললাইনের ওপর উঠে যায়। ট্রেন আসছে দেখে লাল ফ্ল্যাগও উড়ায়নি সিগনাল ম্যান। তার দোষেই মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে গেল।

অপর প্রত্যক্ষদর্শী হেদায়েত হোসেন বলেন, বাসটিতে ১২/১৩ জন যাত্রী ছিলো। রেললাইনের ওপর দাঁড়ানো বাসটিকে মাঝামাঝি ধাক্কা দিয়ে দুমড়ে-মুচড়ে নিয়ে যায় ট্রেনটি। এরপর ট্রেনটি থেমে গেলেও বাসের ভেতর থেকে হতাহতদের উদ্ধার করে ফায়ার সার্ভিসের লোকজন। এরমধ্যে একজন শিশু ও একজন বৃদ্ধের লাশ উদ্ধার করে। আরো একজনের খণ্ড পা উদ্ধার করে।

নারায়ণগঞ্জ সদর মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) শাহ জামান বলেন, ঢাকা থেকে নারায়ণগঞ্জ কেন্দ্রীয় রেল স্টেশনে ঢুকছিল ট্রেনটি। ওই সময়ে ১ নম্বর রেলগেট এলাকায় কালীরবাজার থেকে আসা আনন্দ পরিবহনের একটি বাস সামনে পড়ে যায়। তখন ট্রেনটি সজোরে ধাক্কা দেয়। পরে পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিস নিহতদের মরদেহ উদ্ধার করে। তবে তারা বাসের যাত্রী না ট্রেনের, সেটা নিশ্চিত হওয়া যায়নি। -ডেস্ক রিপোর্ট

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here