শুভ বড়দিন আজ

0
34

(দিনাজপুর২৪.কম) খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব শুভ বড়দিন আজ (২৫ ডিসেম্বর)। খ্রিস্টধর্মের প্রবর্তক যিশুখ্রিস্ট আজকের দিনে বেথলেহেম শহরে জন্মগ্রহণ করেন। খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, সৃষ্টিকর্তার মহিমা প্রচার এবং মানবজাতিকে সত্য ও ন্যায়ের পথে পরিচালনা করার জন্য যিশুখ্রিস্ট জন্ম নিয়েছিলেন। সারা বিশ্বের খ্রিস্টানদের মতো বাংলাদেশের খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীরাও ধর্মীয় আচার, প্রার্থনা ও আনন্দ-উৎসবের মাধ্যমে আজকের দিনটি উদ্যাপন করবেন।

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বড়দিন উপলক্ষে বাণী দিয়েছেন। বাণীতে তারা দেশের খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের বড়দিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) রাজধানীর কাকরাইলের রমনা সেন্ট ম্যারিস ক্যাথিড্রাল চার্চ, তেজগাঁওয়ের পবিত্র জপমালা রানির গির্জা ও মোহাম্মদপুরের সেন্ট ক্রিস্টিনা চার্চে গিয়ে দেখা যায়, প্রতিটি গির্জার ভেতর ও বাইরে নানা রঙের বেলুন, নকশা করা কর্কশিট, রঙিন কাগজ, জরি ও ফুল দিয়ে সাজানো হয়েছে। গির্জা প্রাঙ্গণের বিভিন্ন গাছে ঝোলানো হয়েছে নানা রঙের বাতি। রাতে আলো ঝলমল করছিল গির্জাগুলো। এছাড়া তিনটি গির্জার ভেতরে বর্ণিল সাজে সাজানো হয়েছে কৃত্রিম ‘ক্রিসমাস ট্রি’।

খ্রিস্ট ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, যিশুর জন্ম হয়েছিল জীর্ণ গোয়ালঘরে। সেই বিশ্বাস থেকেই গির্জায় প্রতীকী গোয়ালঘর তৈরি করা হয়েছে। তাতে প্রতীকীভাবে শিশু যিশু ও তার মাতা মেরিসহ অন্যদের তুলে ধরা হয়েছে। খ্রিস্টান ধর্মযাজকরা বলেছেন, নামে ‘বড়দিন’ হলেও আক্ষরিক অর্থে এ দিনটি বড় নয়। এ দিনে খ্রিস্টবিশ্বাসীরা যাতে মন ও হৃদয়ে বড় এবং উদার হতে পারে, তাই যিশুখ্রিস্টের এ জন্মোৎসবকে বড়দিন বলা হয়।

তেজগাঁও ক্যাথলিক গির্জা হোলি রোজারিও চার্চের (পবিত্র জপমালা রানির গির্জা) সাবেক পাল পুরোহিত এবং ফার্মগেট তেজকুনীপাড়ার সেন্ট জন ভিয়ানী হাসপাতালের নির্বাহী পরিচালক ফাদার কমল কোড়াইয়া বলেন, এবার করোনা না থাকায় মানুষ নির্ভয়ে বড়দিনের উৎসব উদযাপন করবেন। বড়দিনের ধর্মীয় অনুষ্ঠানাদির বাইরে সামাজিক-সাংস্কৃতিক আয়োজনগুলোও থাকবে।

এদিকে বড়দিনকে ঘিরে রাজধানীর পাঁচ তারকা হোটেলগুলোও বর্ণিলভাবে সাজানো হয়েছে। রঙিন আলোকসজ্জায় ‘ক্রিসমাস ট্রি’ সাজানো হয়েছে বিভিন্ন হোটেলে। রাজধানীর প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে গিয়ে দেখা যায়, উৎসব উদ্?যাপনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। হোটেলের লবি ও ক্যাফে বাজার রেস্তোরাঁয় ক্রিসমাস ট্রি হাউস ও সান্তা ক্লজ বিভিন্ন আলোকসজ্জার মাধ্যমে সুসজ্জিত করা হয়েছে।

হোটেলটির জনসংযোগ ব্যবস্থাপক মোহাম্মদ নাফিউজ্জামান বলেন, সান্তা ক্লজ ও তাঁর বন্ধুরা হোটেলে আসা শিশুদের চমকপ্রদ উপহার দিয়ে বরণ করবেন। বড়দিন উপলক্ষে হোটেলের সুইমিংপুলের পাশে ওয়েসিস গার্ডেনে শিশুদের জন্য ‘কিডস কার্নিভ্যাল’ মেলার আয়োজন করা হয়েছে। এ মেলায় শিশুদের জন্য জাদুর খেলা, পাপেট শোসহ নানা আয়োজন থাকবে। -নিউজ ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here