শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ক্রীড়াঙ্গনেও জাগরণ ঘটেছে: দিনাজপুরে নৌ-প্রতিমন্ত্রী

0
50
ছবি-সংগ্রহীত

স্টাফ রিপোর্টার (দিনাজপুর২৪.কম) নৌ-প্রতিমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা নিয়ে দেশ পরিচালিত হচ্ছে বলেই ক্রীড়াঙ্গন, শিল্পকলা, শিক্ষাঙ্গন সব জায়গায় একটা জাগরণ ঘটেছে। গ্রাম বাংলায় ফুটবল শুধু নয়, ক্রিকেট, অ্যাথলেটিক, ভলিবল, কাবাডি, বেডমিন্টন, টেনিস সব ধরনের খেলাধুলার প্রসার আমরা দেখতে পাচ্ছি।  বাংলাদেশের প্রত্যেকটি খেলার মাঠ মুখরিত হচ্ছে ক্রীড়াপ্রেমীদের অংশগ্রহণের মধ্য দিয়ে ।

আজ মঙ্গলবার দিনাজপুরের বোচাগঞ্জ উপজেলার সেতাবগঞ্জ শহীদ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে প্রধান অতিথি হিসেবে “৫ম মেয়র কাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট ২০২২” উদ্বোধনকালে তিনি এসব কথা বলেন।

নৌ-প্রতিমন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার অত্যন্ত ক্রীড়াবান্ধব । আমাদের নেত্রী শেখ হাসিনা মায়ের মমতায় এবং বোনের স্নেহ দিয়ে খেলোয়ারদের উৎসাহিত করেন। তার মততা ও স্নেহ নিয়ে দেশের অন্যান্য অঙ্গনের মতোই ক্রীড়াঙ্গন এগিয়ে যাচ্ছে এবং যাবে বলে আমাদের বিশ্বাস।

তিনি বলেন, এই বাংলাদেশের ক্রীড়াঙ্গনের অবস্থা এরকম ছিলো না। আজ থেকে ১৫ বছর আগে এই বোচাগঞ্জ মাঠে এমন খেলাধুলা হতো না। শুধু খেলাধুলাই নয়, দেশে কোনো সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডই ছিলো না। বাংলাদেশের জাতীয় পর্যায়ে, জেলা ও উপজেলা পর্যায়ের খেলাধুলা প্রায় স্থবির ছিলো। বাংলাদেশের মানুষকে খেলাধুলা তথা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে উৎসাহ দেওয়া হতো না। তখন বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ ও সন্ত্রাসের রাষ্ট্রীয় পৃষ্ঠপোষকতা করা হয়েছে। শায়খ আব্দুর রহমান ও বাংলা ভাইকে যুব সমাজের সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেওয়া হয়েছিলো। হাওয়া ভবন তৈরি করে বাংলাদেশে লুটপাট ও দুর্নীতির সমাজব্যবস্থা গড়ে তোলা হয়েছিলো। যুবকদের হাতে ইয়াবা তথা মাদক তুলে দিয়ে বিপথগামী করা হয়েছিলো।

তিনি বলেন, সেতাবগঞ্জের এই মাঠে পঞ্চমবারের মতো মেয়র কাপ অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। এই ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে। বোচাগঞ্জ ক্রীড়া সংস্থার উদ্যোগে অনেকগুলো প্রশিক্ষণের ব্যবস্থা করেছি। ভবিষ্যতে আরও হবে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সহায়তায় ক্রিকেট প্র্যাকটিস করার জন্য এবং ক্রিকেট প্লেয়ার তৈরি করার জন্য আমরা ইতোমধ্যে অবকাঠামো নির্মাণ করেছি। বর্তমান সরকারের সময় এই মাঠটি যেন সুন্দর থাকে, নিরাপদ থাকে সেজন্য মাঠের চারদিকে বেস্টনি দিয়েছি। এই মাঠ আর কখনোই গো-চারণভূমি হবে না। এই মাঠ খেলায়ারদের দ্বারা সব সময় মুখরিত থাকবে। গত চৌদ্দ বছরে আমরা বিভিন্ন টুর্নামেন্ট এখানে করেছি। শুধু ফুটবল নয়, ক্রিকেট, ভলিবল, বেডমিন্টন খেলা  এখানে হয়েছে। ইতোমধ্যে আমাদের অনেক ক্রীড়াবিদ ও ক্রীড়াসংগঠক তৈরি হয়েছে। তাদের দ্বারাই বোচাগঞ্জ উপজেলার ক্রীড়াঙ্গন এগিয়ে যাবে বলে আমি বিশ্বাস করি। এসময় তিনি এই খেলার পৃষ্ঠপোষকতার জন্য  স্থানীয় মেয়রসহ সংশ্লিষ্ট সবাইকে ধন্যবাদ জানান।

তিনি বলেন, কয়েকদিন পরই সমগ্র পৃথিবী ফুটবল বিশ্বকাপের আনন্দে মেতে উঠবে। এসময় বোচাগঞ্জের মেয়র কাপ অত্যন্ত আকর্ষণীয় হবে এবং আনন্দঘন পরিবেশে শেষ হবে। জনসাধারণের সহায়তা চান তিনি।

অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বোচাগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ছন্দা পাল, বোচাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আবু সৈয়দ হোসেন, সাধারণ সম্পাদক মো. আফছার আলী, টুর্নামেন্ট পরিচালনা কমিটির আহবায়ক নূরুল আনোয়ার চৌধুরী ও বোচাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মো. আবদুস সবুর। সভাপতিত্ব করেন সেতাবগঞ্জ পৌর মেয়র মো. আসলাম।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here