সিলেটে বন্যায় ৪৮০ কিলোমিটার রাস্তা ক্ষতিগ্রস্ত

0
33
ছবি-সংগ্রহীত
(দিনাজপুর২৪.কম) সিলেটে ধীরে ধীরে বন্যার পানি কমছে। সব জায়গাই পানি রয়েছে বিপদসীমার নিচে। তবে এই প্রাকৃতিক বন্যায় অনেক ক্ষতি হয়েছে অঞ্চলটিতে। বিশেষ করে অবকাঠামোগত; বন্যায় ক্ষত-বিক্ষত হয়েছে রাস্তা-ঘাট। চলতি বন্যায় সিলেট জেলা ও মহানগরের প্রায় ৪৮০ কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ সব ক্ষতি সেরে উঠতে প্রায় ৪০০ কোটি টাকা খরচ হতে পারে বলে ধারণা সংশ্লিষ্টদের।
সড়ক সংশ্লিষ্টরা জানান, বন্যায় ক্ষতিগ্রস্ত সড়কের মধ্যে সড়ক ও জনপথের (সওজ) অধীনস্থ প্রায় ৭২ কিলোমিটার, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতরের (এলজিইডি) ২৬৭ কিলোমিটার এবং সিলেট সিটি কর্পোরেশন এলাকায় ১৪০ কিলোমিটার সড়ক রয়েছে।
প্রসঙ্গত, সিলেটে গত ১০ মে থেকে শুরু হয় ভারি বর্ষণ। এছাড়া উজান থেকে নেমে আসা ঢলের কারণে বন্যায় কবলে পড়ে সিলেট। সুরমা নদী উপচে পানি ঢুকে পড়ে সিলেট নগরের বেশির ভাগ এলাকায়। গত শুক্রবার দিনগত রাত থেকে কমতে শুরু করে বন্যার পানি। বর্তমানে বন্যার পানি নামতে শুরু করেছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, এবারের বন্যায় সিলেটে প্রায় ৬০০ কিলোমিটার সড়ক তলিয়ে যায়। তবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে প্রায় ৪৮০ কিলোমিটার সড়ক। এর বাইরে সিলেট সদর উপজেলা ও কোম্পানীগঞ্জ উপজেলায় দু’টি কালভার্ট ভেঙে গেছে।
সওজ কার্যালয় সূত্র জানায়, সারিঘাট সড়কের ১২ দশমিক ৪০ কিলোমিটার, সিলেট-তামাবিল-জাফলং সড়কের ১ দশমিক ২০ কিলোমিটার, কানাইঘাটের দরবস্ত-কানাইঘাট-শাহবাগ সড়কের ১৪ দশমিক ৮০ কিলোমিটার এবং সিলেট-সুনামগঞ্জ সড়কের ৬ দশমিক ৫০ কিলোমিটার সড়ক বন্যায় তলিয়ে যায়। এ ছাড়া বিশ্বনাথ-লামাকাজি সড়ক, কোম্পানীগঞ্জ-ছাতক সড়ক,  শেওলা-সুতারকান্দি সড়ক এবং বিমানবন্দর-বাদাঘাট-কুমারগাঁও সড়কের বিভিন্ন অংশ ছিল পানির নিচে।
সওজ সিলেটের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. মোস্তাফিজুর রহমান জানান, বন্যায় সওজের অধীনস্থ ১০টি সড়কের প্রায় ৭২ কিলোমিটার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এসব সড়ক সংস্কারে প্রায় ৬০-৭০ কোটি টাকা লাগবে।
এলজিইডির কার্যালয় সূত্র জানায়, এই বন্যায় গোয়াইনঘাটে ২৭টি সড়কে ৮২ দশমিক ১৩ কিলোমিটার, কানাইঘাটে ১৫টি সড়কে ৩০ দশমিক ৫ কিলোমিটার, জৈন্তাপুর উপজেলার ১১টি সড়কে ৩২ কিলোমিটার, সদরের ১২টি সড়কে ২১ দশমিক ৩৮ কিলোমিটার, গোলাপগঞ্জে ১০টি সড়কে ২২ কিলোমিটার, কোম্পানীগঞ্জে চারটি সড়কে ৩৪ দশমিক ৬৩ কিলোমিটার, দক্ষিণ সুরমার চারটি সড়কে সাড়ে তিন কিলোমিটার, ফেঞ্চুগঞ্জে একটি সড়কে দেড় কিলোমিটার, ওসমানীনগর উপজেলায় একটি সড়কের প্রায় দেড় কিলোমিটার ও বালাগঞ্জে একটি সড়কে দেড় কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
এলজিইডি, সিলেট’র নির্বাহী প্রকৌশলী এনামুল কবির জানান, কিছু কিছু রাস্তায় এখনও পানি থাকায় পুরো হিসেব পেতে আরও কয়েকদিন সময় লাগবে। তবে এখন পর্যন্ত ১১১টি সড়কের প্রায় ২৬৭ কিলোমিটার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এ ছাড়া এলজিইডির দুটি কালভার্ট ভেঙেছে। এসব সংস্কারে আনুমানিক ২০০ কোটি টাকা লাগতে পারে।
অন্যদিকে বন্যায় সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ১৫টি ওয়ার্ডের প্রায় ১৪০ কিলোমিটার সড়ক ক্ষতির মুখে পড়েছে। এগুলো সংস্কারে প্রয়োজন ১০০ কোটি টাকা।
সিসিকের প্রধান প্রকৌশলী নুর আজিজুর রহমান বলেন, সিসিকের ২৭টি ওয়ার্ডের মধ্যে ১৫টির ১২৫ কিলোমিটার সড়ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এর বাইরে সম্প্রসারিত নতুন ওয়ার্ডগুলোর প্রায় ১৫ কিলোমিটার সড়কেও বন্যায় ক্ষতি হয়েছে। এসব সংস্কারে আনুমানিক ১০০ কোটি টাকা লাগতে পারে বলে জানান তিনি। -অনলাইন ডেস্ক
মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here