সিলেট জেলা বিএনপির সভাপতি কাইয়ুম, এমরান সম্পাদক

0
316

(দিনাজপুর২৪.কম) স্থগিত হওয়া সিলেট জেলা বিএনপির দ্বি-বার্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। কাউন্সিলরদের প্রত্যক্ষ ভোটে সভাপতি নির্বাচিত হয়েছে আব্দুল কাইয়ুম চৌধুরী ও সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হয়েছেন এম এমরান আহমেদ চৌধুরী।

মঙ্গলবার নগরের রেজিস্ট্রেরি মাঠে জেলার আওতাধীন ১৩ উপজেলা ও ৪ পৌরসভার কাউন্সিলরদের সরাসরি ভোটে তারা নির্বাচিত হন। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। সন্ধ্যায় দেশ রূপান্তরকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন নবনির্বাচিত সভাপতি কাইয়ুম চৌধুরী।

কাউন্সিলরদের ৮৬৮ ভোট পেয়ে সভাপতি হন কাইয়ুম। তার নিকটতম প্রার্থী আবুল কাহের চৌধুরী শামীম পেয়েছেন ৬৭৫ ভোট। সাধারণ সম্পাদক এমরান পেয়েছেন ৭৯৮ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী আলী আহমদ পেয়েছেন ৫৭৩ ভোট।  একই পদে আ ফ ম কামাল পেয়েছেন ৭২ ভোট এবং এম আবদুল মান্নান পেয়েছেন ৮ ভোট।

সাংগঠনিক সম্পাদক পদে নির্বাচিত হয়েছেন শামীম আহমদ, পেয়েছেন ৬২ ভোট। তার নিকটতম প্রার্থী অ্যাডভোকেট এম মুজিবুর রহমান মুজিব পেয়েছেন ৪৬৪ ভোট। লোকমান আহমেদ পেয়েছেন ৪৩৯ ভোট।  আগামী দুই বছর তাদের নেতৃত্বেই থাকবে সিলেট জেলা বিএনপি।

এ নির্বাচনে মোট ভোটার ছিল ১৮১৮ জন।

কাইয়ুম সাবেক অর্থমন্ত্রী প্রয়াত এম সাইফুর রহমানের পিএস ছিলেন। সাধারণ সম্পাদক এমরান সাবেক ছাত্রদল নেতা।  ২০১৬ সালের ৭ ফেব্রুয়ারি কাউন্সিলের মাধ্যমে আবুল কাহের শামীমকে সভাপতি ও আলী আহমদকে সাধারণ সম্পাদক করে জেলা বিএনপির কমিটি গঠন করা হয়। ২০১৯ সালের ৩ অক্টোবর কেন্দ্রীয় কমিটি পুরাতন কমিটি ভেঙে জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটি গঠন করে। এ কমিটিতে আহ্বায়ক করা হয় কামরুল হুদা জায়গীরদারকে। প্রায় ২ বছর ৩ মাস দায়িত্ব পালন শেষে সম্মেলনের আয়োজন করলো আহ্বায়ক কমিটি।

২১ মার্চ সিলেট জেলা বিএনপির সম্মেলন ও কাউন্সিল হওয়ার কথা ছিল নগরের আলিয়া মাদ্রাসা মাঠে। কিন্তু ভোটের ২৪ ঘণ্টা আগেই কাউন্সিলরদের ভোটার তালিকা নিয়ে আপত্তির মুখে কেন্দ্রের নির্দেশে তা স্থগিত করা হয়।

কাউন্সিলে সভাপতি পদপ্রার্থী দলের কেন্দ্রীয় সদস্য ও সিলেট সিটি করপোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর প্রার্থি হলেও পরে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেন। -অনলাইন ডেস্ক

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here