মন কেড়েছে হাবিপ্রবির স্থাপত্য বিভাগের ‘বিহঙ্গ বন্দনা’

0
91

মাসুদ রানা, হাবিপ্রবি (দিনাজপুর২৪.কম) বিগত বছরগুলোর ন্যায় এ বছরও হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (হাবিপ্রবি) প্রশংসা কুড়াচ্ছে স্থাপত্য প্রদর্শনী ‘বিহঙ্গ বন্দনা’। প্রতি বছর বাংলা বর্ষবরণ উপলক্ষে এমন আয়োজন করলেও এবছর মহান স্বাধীনতা দিবস ও জাতীয় দিবস উপলক্ষে এ প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়েছে।

স্বাধীনতার গানের সাথে সঙ্গতি রেখে এবারের স্থাপত্য প্রদর্শনীর নামকরণ করা হয়েছে বলে জানান হাবিপ্রবির স্থাপত্য বিভাগের চেয়ারম্যান সহকারী অধ্যাপক আবু তোয়াব মো. শাহ রিয়ার।

তিনি জানান, আমরা অত্যন্ত সৌভাগ্যবান কারণ মুজিব জন্মশতবার্ষিকী এবং স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীর সন্ধিক্ষণে মহান স্বাধীনতা দিবস- ২০২২ উপলক্ষে ‘বিহঙ্গ বর্ণনা’ প্রদর্শনীর আয়োজন করতে পেরেছি। এবারের প্রদর্শনীতে আমরা হাবিপ্রবি ক্যাম্পাসের বিভিন্ন সমস্যাগুলোকে চিহ্নিত করে কিভাবে সমাধান করা যায় তার বিভিন্ন উপায় দেখিয়েছি।

প্রশংসা কুড়াচ্ছে হাবিপ্রবি স্থাপত্য বিভাগের ‘বিহঙ্গ বন্দনা’

এছাড়া দিনাজপুরের সাঁওতাল পল্লীর মানুষের জীবনযাত্রা কীভাবে আরও যুগোপযোগী করা যায় সে ব্যাপারে বিভিন্ন বিষয়াদি এবারের প্রদর্শনীতে স্থান পেয়েছে। স্থাপত্য বিভাগের শিক্ষার্থীরা দিনরাত নিরলসভাবে কাজ করেছে বলেই আমরা এতো সুন্দর একটি প্রদর্শনীর আয়োজন করতে পেরেছি।

এ দিকে স্থাপত্য বিভাগের শিক্ষার্থী শিরাজুম মুনিরা পিউ (হাবিপ্রবি ১৭ ব্যাচ) বলেন, গত ৭ দিন আগে থেকেই আমরা এই প্রদর্শনীর জন্য টিএসসির নিচতলায় কাজ শুরু করি। মূলত আমরা এই প্রদর্শনীতে তুলে এনেছি গ্রন্থাগার ডিজাইন, পর্যটন কেন্দ্র, মেটাল ও মাটির ভাস্কর্য, বহুতল ভবন, আবাসিক বাসভবন, এটেলিয়ার, স্কেচ ও ব্রাঞ্চ আর্ট, কালার হুইল, ডুডল আর্ট, পিক্সেল আর্ট, সাঁওতাল বসতি পরিকল্পনা, বিভিন্ন রকমের কম্পোজিশন, স্কেচ, ফ্রাগমেন্টেশন, বেস রিলিফ, ইন্সটলেশন, এটেলিয়ার, স্কাল্পচার, হাইরাইজ, ব্রাঞ্চ আর্ট, হাবিপ্রবির ক্যাম্পাস পূর্নচিন্তা প্রভৃতি।

প্রশংসা কুড়াচ্ছে হাবিপ্রবি স্থাপত্য বিভাগের ‘বিহঙ্গ বন্দনা’

শনিবার (২৬ মার্চ) হাবিপ্রবির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম. কামরুজ্জামান ‘বিহঙ্গ বন্দনা’ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন। এ সময় তিনি প্রায় এক ঘণ্টা প্রদর্শনীর বিভিন্ন কারুকার্য ঘুরে ঘুরে দেখেন। এ সময় উপাচার্যের সাথে উপস্থিত ছিলেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার, বিভিন্ন অনুষদের ডিন ও চেয়ারম্যান, প্রক্টর, ছাত্র পরামর্শ ও নির্দেশনা বিভাগের পরিচালক, জনসংযোগ ও প্রকাশনা বিভাগের পরিচালক, বিভিন্ন হলের হল সুপারসহ অন্যান্য ব্যক্তিবর্গ। ‘বিহঙ্গ বন্দনা’র পরিদর্শন শেষে হাবিপ্রবির উপাচার্য স্থাপত্যবিভাগের কমেন্ট বক্সে নিজের অনুভূতি ব্যক্ত করেন।

অন্য দিকে, স্থাপত্য বিভাগের এমন আয়োজন দেখে সন্তুষ্ট হাবিপ্রবির শিক্ষার্থীরা। ‘বিহঙ্গ বন্দনা’ ঘুরে দেখে পরিসংখ্যান বিভাগের শিক্ষার্থী শরিফুল ইসলাম লাবু জানান, স্থাপত্য বিভাগ প্রতিবছর হাবিপ্রবির সাধারণ শিক্ষার্থীদের চমক দিয়ে থাকেন। এ বছরে তাদের চমকের নাম স্থাপত্য বন্দনা। নিঃসন্দেহে অনেক ভালো কাজ করেছে স্থাপত্য বিভাগের সম্মানিত শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।

উল্লেখ্য, বিগত বছরগুলোতে স্থাপত্যবিভাগের শিক্ষার্থীদের আয়োজনে স্থাপত্যে অনুবন্ধ, স্থাপত্যে আলেখ্য ও স্থাপত্যে অনুরণন প্রদর্শনীগুলো হাবিপ্রবি ক্যাম্পাসে আলোড়ন সৃষ্টি করে প্রশংসা কুড়িয়েছে।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here