১৮ হাজার লিটার ভোজ্যতেল উদ্ধারের পর আগের দামে বিক্রি

0
9
-ছবি সংগ্রহীত

(দিনাজপুর২৪.কম) অবৈধভাবে ১০ হাজার লিটার খোলা ভোজ্য সোয়াবিন তেল, ১২৪৪ লিটার বোতলজাত তেল ও ৭ হাজার লিটার সরিষার তেল মজুত করায় পাবনার ঈশ্বরদীতে এক ব্যবসায়ীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরণ অধিদপ্তর।

মঙ্গলবার (১০ মে) দুপুরে ঈশ্বরদী শহরের নূরমহল্লা এলাকার মাতৃমন্দিরের সামনে শ্যামল পালের গোডাউনে অভিযান পরিচালনা করেন পাবনা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জহিুরুল ইসলাম।

এ সময় ঈশ্বরদীর নিরাপদ খাদ্য পরিদর্শক সানোয়ার রহমানসহ ঈশ্বরদী থানা পুলিশ উপস্থিত ছিলেন।

বিপুল পরিমাণ সয়াবিন তেলের অবৈধ মজুত রেখে বাজারে কৃত্রিম সংকট সৃষ্টির অপরাধে ব্যবসায়ী শ্যামল দত্ত পালকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা ও জব্দকৃত ভোজ্যতেল জনসম্মুখে আগের দামে ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করার নির্দেশ দেন পাবনা ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক জহিুরুল ইসলাম।

তবে বিপুল পরিমাণ ভোজ্যতেল আটকের পর মাত্র ২০ হাজার টাকা জরিমানা করায় উপস্থিত ক্রেতা ও সাধারণ মানুষ ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

উপস্থিত স্বপন, মহসীন ও মিন্টু নামের একাধিক ভুক্তভোগী ক্রেতা অভিযোগ করেন, শ্যামল পালের গোডাউন মালামাল জব্দ ও গোডাউন সিলগালা করা উচিৎ ছিল।

২০ হাজার টাকায় পার পেয়ে যাওয়ায় তারা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, “গুরু পাপে লঘু দণ্ড” পেলেন শ্যামল পাল। তাদের মতে, ঈশ্বরদীতে শ্যামল পালের মতো আরো বেশ কয়েকজন তেল মজুদদার ব্যবসায়ী রয়েছেন তাদের বিরুদ্ধেও অভিযান পরিচালনা করা দরকার।  -ডেস্ক রিপোর্ট

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here