৫ মাসে সরকারের নিট ব্যাংক ঋণ ১৪ হাজার কোটি টাকা

0
60

(দিনাজপুর২৪.কম) ব্যাংক-ব্যবস্থা থেকে সরকার গত ৫ মাসে নিট ঋণ নিয়েছে প্রায় ১৪ হাজার কোটি টাকা। এ সুবাদে ২৫ নভেম্বর শেষে সরকারের ব্যাংক ঋণের স্থিতি দাঁড়িয়েছে দুই লাখ ১৫ হাজার ৮৭৪ কোটি টাকা, যা গত ৩০ জুনে ছিল দুই লাখ দুই হাজার ১১৫ কোটি টাকা। চলতি মাসে আরো সাড়ে ১৭ হাজার কোটি টাকার ঋণ নেয়া হবে। এ থেকে পুরনো ঋণ সুদে আসলে পরিশোধ করা হবে সাড়ে ১৫ হাজার কোটি টাকা। এ সুবাদে ঋণ হবে আরো দুই হাজার কোটি টাকা। আর সরকারের ঋণের এ কর্মসূচি ঠিক থাকলে ৩১ ডিসেম্বর শেষে অর্থবছরের প্রথম ছয় মাসে (জুলাই-ডিসেম্বর) ব্যাংক-ব্যবস্থা থেকে নিট ঋণের স্থিতি ১৬ হাজার কোটি টাকায় ইতি টানবে। বাংলাদেশ ব্যাংকের সংশ্লিষ্ট এক সূত্র এ তথ্য জানিয়েছে।

বাংলাদেশ ব্যাংক সূত্র জানিয়েছে, চলতি ডিসেম্বরে সরকার ব্যাংক-ব্যবস্থা থেকে ঋণ নেযার লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করেছে ১৭ হাজার ৫০০ কোটি টাকা। এর মধ্যে ট্রেজারি বিলের মাধ্যমে নেয়া হবে সাড়ে ১১ হাজার কোটি টাকা এবং ট্রেজারি বন্ডের মাধ্যমে নেয়া হবে ছয় হাজার কোটি টাকা। এর মধ্যে পুরনো ঋণ সুদে-আসলে পরিশোধ করতে হবে সাড়ে ১৫ হাজার কোটি টাকার। এ ক্ষেত্রে ট্রেজারি বিল মেয়াদ পূর্তি হবে সাড়ে ১০ হাজার কোটি টাকা এবং ট্রেজারি বন্ড মেয়াদ পূর্তিতে পরিশোধ করা হবে পাঁচ হাজার কোটি টাকা। এ সুবাদে চলতি মাসে সরকার ব্যাংক-ব্যবস্থা থেকে নিট ঋণ নেবে দুই হাজার কোটি টাকা।
সরকারের ঋণ নেয়ার সর্বশেষ পরিসংখ্যান থেকে দেখা যায়, চলতি অর্থবছরের ১ জুলাই থেকে ২৫ নভেম্বর পর্যন্ত বাণিজ্যিক ব্যাংক থেকে নিট ঋণ নেয়া হয়েছিল ১৭ হাজার ৭৯৬ কোটি টাকা। বিপরীতে কেন্দ্রীয় ব্যাংককে পরিশোধ করেছে চার হাজার ৩৬ কোটি টাকা। এ সুবাদে ব্যাংক-ব্যবস্থা থেকে আলোচ্য সময়ে নিট ঋণ নেয়া হয়েছে ১৩ হাজার ৭৬০ কোটি টাকা। ফলে ২৫ নভেম্বর শেষে সরকারের ব্যাংক ঋণের স্থিতি দাঁড়িয়েছে দুই লাখ ১৫ হাজার ৮৭৪ কোটি টাকা।

মতামতের জন্য সম্পাদক দায়ী নয়।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here