শনিবার , ৯ মার্চ ২০২৪ | ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও কৃষাণ
  5. ক্যাম্পাস
  6. ক্রিকেট
  7. গল্প-সাহিত্য
  8. চাকুরি
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. টালিউড
  12. টেনিস
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. ধর্ম ও ইসলাম
  15. ফিচার

২ সিটিসহ স্থানীয় সরকারের ২৩৩ নির্বাচন শুরু

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ৯, ২০২৪ ৪:১০ পূর্বাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) শনিবার (৯ মার্চ) ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচন ও কুমিল্লা সিটির মেয়র পদে উপনির্বাচন। একইদিন পটুয়াখালী, বরগুনা, মুন্সীগঞ্জ, বগুড়াসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে পৌরসভা ও ইউনিয়ন পরিষদে সাধারণ এবং উপনির্বাচনের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

জমজমাট প্রচারযুদ্ধ শেষে উৎসবমুখর পরিবেশে ২৩৩টি স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নির্বাচনে সকাল ৮টা থেকে বিকাল ৪টা পর্যন্ত বিরতিহীনভাবে চলবে ভোটগ্রহণ। এর মধ্যে কয়েকটি নির্বাচনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) এবং কয়েকটিতে ব্যালটে ভোটগ্রহণ হবে।   ময়মনসিংহ ও কুমিল্লা সিটির বাইরে তিনটি পৌরসভায় সাধারণ নির্বাচন, পৌরসভার শূন্য পদে উপনির্বাচন ১৫টি, ইউনিয়ন পরিষদের সাধারণ নির্বাচন ১৩টি, ইউনিয়ন পরিষদের শূন্য পদে উপনির্বাচন ১৯০টি, জেলা পরিষদে শূন্য পদে সাতটি উপনির্বাচনে লড়বেন প্রার্থীরা।

 এদিকে কঠোর নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনের ১২৮টি কেন্দ্রে ইভিএম মেশিনসহ ভোটের প্রয়োজনীয় সামগ্রী পৌঁছে গেছে। সুষ্ঠু নির্বাচনের জন্য মোতায়েন করা হয়েছে আইনশৃঙ্খলা রক্ষা বাহিনীর সাড়ে চার হাজার সদস্য।

ময়মনসিংহ সিটি নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা শেখ মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান বলেন, নির্বাচন যাতে সুষ্ঠুভাবে হয় এবং কোনো ধরনের বিশৃঙ্খলা যাতে না হয়, সে জন্য ব্যাপক নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

এদিকে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের উপ-নির্বাচন ঘিরেও প্রস্তুতি সম্পন্ন। শুধু কেন্দ্র নয়, পুরো কুমিল্লা শহরই নিরাপত্তার আওতায় আনা হয়েছে। এদিকে, বাস প্রতীকের কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে ভোট না দেয়ার হুমকির অভিযোগ টেবিল ঘড়ি সমর্থকদের। ভোটকেন্দ্রে প্রভাব বিস্তার করা হলে কেন্দ্র বন্ধ করে দেয়ার হুঁশিয়ারি রিটার্নিং কর্মকর্তার।

কুমিল্লা সিটি নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেন বলেন, ভোটের মাঠে প্রভাব বিস্তারের কোনো সুযোগ দেয়া হবে না। কোনো অনিয়মের চেষ্টা চালানো হলে ভোটকেন্দ্র বন্ধ করে দেয়া হবে বলেও জানান তিনি।

নির্বাচন কমিশন সূত্রে জানা যায়, সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, জেলা পরিষদের সাধারণ ও উপনির্বাচন ইভিএমে এবং বাকিগুলো স্বচ্ছ ব্যালট বাক্স ও ব্যালট পেপারে অনুষ্ঠিত হবে। – নিউজ ডেস্ক

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস

আপনার জন্য নির্বাচিত