রবিবার , ১০ মার্চ ২০২৪ | ৫ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও কৃষাণ
  5. ক্যাম্পাস
  6. ক্রিকেট
  7. গল্প-সাহিত্য
  8. চাকুরি
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. টালিউড
  12. টেনিস
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. ধর্ম ও ইসলাম
  15. ফিচার

রাজধানীতে ছাত্রদলের মিছিল

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ১০, ২০২৪ ১:২৬ অপরাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম)কেন্দ্রীয় ছাত্রদলের সাবেক সহসভাপতি ইখতিয়ার রহমান কবিরের মুক্তি দাবিতে রাজধানীতে মিছিল করেছে জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল। রোববার বিকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে থেকে এ মিছিল শুরু হয়ে নাইটিঙ্গেল মোড় হয়ে ফকিরাপুল মোড় ঘুরে আবার কার্যালয়ের সামনে এসে শেষ হয়।

এ সময় কয়েকশ নেতাকর্মী বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার মুক্তি দাবিতে এবং দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবিতে স্লোগান দেন।

গত বছরের ২২ ডিসেম্বর রাজধানীর শনিরআখড়া থেকে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী গ্রেফতার করে ইখতিয়ার রহমান কবিরকে।

মিছিলের আগে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে ছাত্রদলের সাবেক যুগ্ম সম্পাদক সালেহ মোহাম্মদ আদনান বলেন, দেশের গণতন্ত্রকে ধ্বংস করে জনগণের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়ার পর রাজনৈতিক অধিকারও কেড়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে সরকার। তারা বিরোধী মত ও পথকে সহ্য করতে পারে না। এজন্য বিএনপিসহ অন্যান্য দলের নেতাকর্মীদের ওপর অকথ্য নির্যাতন চালিয়ে যাচ্ছে। বেছে বেছে জনপ্রিয় নেতাদের মাসের পর মাস কারাগারে রাখা হচ্ছে। ইখতিয়ার রহমান কবিরও সেইরকম ষড়যন্ত্রের শিকার। তবে এসব করে সরকারের শেষ রক্ষা হবে না। ছাত্রদলের নেতাকর্মীরা অতন্ত্র প্রহরীর মতো এ দেশের জনগণের অধিকার রক্ষায় যেমন সোচ্চার আছে তেমনি এই অবৈধ ও তাবেদার সরকারকে ক্ষমতা থেকে সরিয়ে দিতে আন্দোলন করছে। অচিরেই এই সরকারের পতন ঘটবে।

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক সভাপতি খোরশেদ আলম সোহেল বলেন, এই সরকারের কাছে কেউ নিরাপদ নয়। দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব, জাতি হিসেবে অস্তিত্ব কোনো কিছুই টিকবে না যদি আওয়ামী লীগ থাকে। তাই এই সরকারকে সরিয়ে দিতে তারেক রহমানের নেতৃত্বে চলমান আন্দোলনকে চূড়ান্ত পর্যায়ে নিয়ে যেতে হবে। এজন্য নিজের জীবনকে বাজি ধরতে হবে, রাজপথে রক্ত দিতে হবে।

মিছিলে আরও উপস্থিত ছিলেন ছাত্রদলের সাবেক সহসভাপতি সাজ্জাদুল হানিফ, ইলিয়াস হোসেন, সিরাজুল ইসলাম, শাখাওয়াত হোসেনসহ বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদক ও নেতাকর্মীরা।

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস