শুক্রবার , ২২ মার্চ ২০২৪ | ২রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. কৃষি ও কৃষাণ
  5. ক্যাম্পাস
  6. ক্রিকেট
  7. গল্প-সাহিত্য
  8. চাকুরি
  9. জাতীয়
  10. জেলার খবর
  11. টালিউড
  12. টেনিস
  13. তথ্য-প্রযুক্তি
  14. ধর্ম ও ইসলাম
  15. ফিচার

চাল নিয়ে চালবাজি অসাধু ব্যবসায়ীদের: অভিযোগ কৃষকদের

প্রতিবেদক
admin
মার্চ ২২, ২০২৪ ৬:১৭ পূর্বাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) হঠাৎই বেড়েছে সব ধরনের চালের দাম। বিশেষ করে মোটা চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ৩ টাকা পর্যন্ত। মিলারদের দাবি হাটগুলোতে ধানের আমদানি কম, আর বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধির প্রভাবেই বাড়াতে হয়েছে চালের দাম। তবে কৃষকদের অভিযোগ, ভরা মৌসুমে কম দামে ধান কিনে এখন বেশি দামে বিক্রি করছে কিছু অসাধু ব্যবসায়ী।

বেসামাল বাজারে পণ্যের দরদাম উঠা-নামা চলছেই। সেই তালিকায় আরেক দফায় যুক্ত হলো চালের দাম। নওগাঁর খুচরা বাজারে সপ্তাহের ব্যবধানে সব ধরনের চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ৩ টাকা পর্যন্ত। বিশেষ করে মোটা জাতের স্বর্ণা চাল ৪৭ টাকা থেকে বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ৫০ টাকায়। খুচরা ব্যবসায়ীদের দাবি, মিলগেটেই বেশি দামে কেনা, আর পরিবহন খরচ পুষিয়ে নিতেই এমন মূল্যবৃদ্ধি। খুচরা ব্যবসায়ীরা জানায়, বেচাকেনা নেই তাদের। চাল বেশি দামে কিনতে হচ্ছে। দিনে ৩/৪ মণ চালও বিক্রি করতে পারছেন না তারা। সব ধরনের চাল ২ থেকে ৩ টাকা করে বেশি দাম এখন। এছাড়া মিল মালিকরাও কথা বলছেন পরিচিত সুরেই। বলছেন, গত কয়েকদিনে হাটগুলোতে হঠাৎই বেড়েছে ধানের দর। অন্যদিকে বিদ্যুতের মূল্য বৃদ্ধি, সব মিলিয়ে বেড়েছে উৎপাদন খরচ।

তবে এ মৌসুমে চালের দাম আর না কমার ইঙ্গিত দিয়েছেন কিছু মিলার। এক মিলার বলেন, ধানের শেষ সময়ে কৃষকের কাছে ধানের মজুদ কম। এছাড়া ব্যবসায়ীদের মজুদ সরকার আগেই চাপ দিয়ে বের করে নিয়েছে। যার ফলে ধানের বাজার বাড়তি। এই কারণে আজ চালের বাজার এমন।

অন্যদিকে এমন পরিস্থিতিতে সাধারণ কৃষকদের অভিযোগ, কিছু ব্যবসায়ী ভরা মৌসুমে কৃষকদের কাছ থেকে কম দামে ধান কিনে মজুত রেখেছিল। সেগুলোই এখন বাজারে ছাড়ছেন অন্তত ৩শ’ থেকে ৪শ’ টাকা বেশিতে। আর তাই কৃষকরা ধানের দাম পাচ্ছেন এমন বক্তব্য মিথ্যা ছাড়া কিছুই নয়।

কৃষকরা জানান, ১১০৭ টাকা প্রতি মণ ধান। এই দামে বিক্রি করার পর সেই ধান বর্তমানে ২২শ’ টাকা। এছাড়া কৃষকরা ঋণগ্রস্ত হয়ে ধান ওঠার পরপর তা দ্রুত বিক্রি করে দেয়। তখন কৃষকরা দাম পায় না। সাধারণত যারা ধান কিনে ব্যবসা করছে তারা দাম পাচ্ছে। -নিউজ ডেস্ক

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস