রবিবার , ১৯ মে ২০২৪ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও কৃষাণ
  6. ক্যাম্পাস
  7. ক্রিকেট
  8. গল্প-সাহিত্য
  9. চাকুরি
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টালিউড
  13. টেনিস
  14. তথ্য-প্রযুক্তি
  15. ধর্ম ও ইসলাম

যে কারণে ডিবিতে এসেছিলেন মামুনুল হক

প্রতিবেদক
admin
মে ১৯, ২০২৪ ৬:৫০ পূর্বাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) হেফাজতে ইসলামের সাবেক কেন্দ্রীয় যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা মামুনুল হক ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কার্যালয় থেকে বের হয়ে গেছেন। মূলত নিজের মোবাইল নিতে সেখানে আসেন বলে জানান তিনি।

শনিবার (১৮ মে) বিকেলের দিকে ডিবি কার্যালয়ে আসেন তিনি। পরে প্রায় ২ ঘণ্টা অবস্থান করে সন্ধ্যা ৭টা ৪০ মিনিটের দিকে ডিবি কার্যালয় থেকে বের হন।

এর আগে, ডিবি কার্যালয়ে ডিবিপ্রধান হারুন অর রশীদের রুমে প্রবেশ করেন ও তার সঙ্গে বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলেন।

ডিবি কার্যালয় বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করলে মামুনুল হক বলেন, ‘আমি আসছিলাম মোবাইল নিতে।’

একথা বলেই গাড়িতে উঠে যান তিনি। এছাড়া আর কোনো কথা বলেননি।

তবে হঠাৎ ডিবি কার্যালয়ে এসে প্রায় দুই ঘণ্টা অবস্থান করে বেরিয়ে যাওয়ার সময় সাংবাদিকদের সঙ্গে কোনো কথা না বলায় অনেকে প্রশ্ন তুলেছে যে, তিনি কি গণমাধ্যমকে এখন ভয় পান নাকি এড়িয়ে গেলেন?

এর আগে, গত ৩ মে (শুক্রবার) সকাল ১০টার দিকে মামুনুল হক কারাগার থেকে মুক্তি পান।

উল্লেখ্য, নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের রয়েল রিসোর্টে ২০২১ সালের ৩ এপ্রিল এক নারীর সঙ্গে মামুনুল হককে অবরুদ্ধ করেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে। খবর পেয়ে হেফাজতের স্থানীয় নেতাকর্মীরা রিসোর্টে গিয়ে ভাঙচুর চালিয়ে তাকে ছিনিয়ে নিয়ে যান। ঘটনার পর থেকে ঢাকার মোহাম্মদপুরের জামিয়া রাহমানিয়া আরাবিয়া মাদ্রাসায় অবস্থান করেন মামুনুল হক।

পরে ১৮ এপ্রিল ওই মাদ্রাসা থেকে একটি মাওলানা মামুনুল হককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। এরপর ৩০ এপ্রিল সোনারগাঁ থানায় তার বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের মামলা করেন তার সঙ্গে রিসোর্টে অবরুদ্ধ হওয়া নারী। যদিও ওই নারীকে তার দ্বিতীয় স্ত্রী দাবি করে আসছেন মামুনুল হক। এরপর ওই মাসেই দেশের বিভিন্ন স্থানে তার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহসহ অর্ধশতাধিক মামলা হয়েছে। পরে সেসব মামলায় তাকে গ্রেপ্তার দেখিয়েছে পুলিশ। গ্রেফতারের পর থেকে এসব মামলায় তিনি কারাগারে আছেন। ডেস্ক রিপোর্ট

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস