রবিবার , ৯ জুন ২০২৪ | ৬ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও কৃষাণ
  6. ক্যাম্পাস
  7. ক্রিকেট
  8. গল্প-সাহিত্য
  9. চাকুরি
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টালিউড
  13. টেনিস
  14. তথ্য-প্রযুক্তি
  15. ধর্ম ও ইসলাম

সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যার যেন উৎসব শুরু হয়েছে: ফখরুল

প্রতিবেদক
admin
জুন ৯, ২০২৪ ৭:৩৬ পূর্বাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী তিন বাংলাদেশি নাগরিককে গুলি করে আহত করার ঘটনায় নিন্দা জানিয়েছে বিএনপি। দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘আবারো প্রমাণিত হলো, সীমান্তে বিএসএফের বাংলাদেশিদের হত্যা ও আহত করার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার নির্বিকার। আর সে কারণেই সীমান্তে বাংলাদেশি হত্যার যেন উৎসব শুরু হয়েছে। সম্প্রতি ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বাংলাদেশের অভ্যন্তরে প্রবেশ করে নারীদের ওপরও গুলি চালিয়েছে।’

শনিবার (৮ জুন) এক বিবৃতিতে বিএনপি মহাসচিব আরও বলেন, শুক্রবার বিকেলে লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বাংলাদেশ সীমান্তে ঢুকে ভারতীয় সীমান্ত বাহিনী—বিএসএফের গুলিতে আলতাব হোসেন নামে একজন কৃষকসহ তিনজন গুরুতর আহত হয়েছেন।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীর ভারত সফরের আগের দিন লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী কতৃর্ক তিনজন বাংলাদেশিকে গুলি করে আহত করার ঘটনায় আবারো প্রমাণিত হলো, সীমান্তে বিএসএফ কতৃর্ক বাংলাদেশিদের হত্যা ও আহত করার বিষয়ে বাংলাদেশ সরকার নির্বিকার।’

তিনি অভিযোগ করে বলেন, ‘দীর্ঘদিন ধরে সীমান্তে বাংলাদেশিদের ধরে নিয়ে গিয়ে নির্যাতন এবং হত্যা ও আহত করার ধারাবাহিকতা এখন পর্যন্ত পুরোদমে চলছে। অথচ বাংলাদেশ সরকার নতজানু নীতির কারণেই সীমান্তে বাংলাদেশি জনগণের জানমালের নিরাপত্তার তোয়াক্কা করে না। শুধু অবৈধ ক্ষমতাকে দখলে রাখার জন্য বাংলাদেশের স্বাধীনতা—সার্বভৌমত্বকে উজাড় করে দিয়ে দেশকে একটি দুর্বল রাষ্ট্রে পরিণত করার নীলনকশা বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। জনগণের অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠা হলেই কেবল দেশ ও মানুষের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা সম্ভব হবে।’ -ডেস্ক রিপোর্ট

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস