শনিবার , ১৩ এপ্রিল ২০২৪ | ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও কৃষাণ
  6. ক্যাম্পাস
  7. ক্রিকেট
  8. গল্প-সাহিত্য
  9. চাকুরি
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টালিউড
  13. টেনিস
  14. তথ্য-প্রযুক্তি
  15. ধর্ম ও ইসলাম

ইসরায়েলে হামলা নয়: ইরানকে বাইডেনের হুঁশিয়ারি

প্রতিবেদক
admin
এপ্রিল ১৩, ২০২৪ ৬:৩৫ পূর্বাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) সিরিয়ার দামেস্কে অবস্থিত ইরানের কনস্যুলেটে ইসরায়েলের হামলায় কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা নিহত হয়েছেন। এ ঘটনার প্রতিশোধ নিতে ইসরায়েলে যেকোনো মুহূর্তে হামলা চালাতে পারে ইরান। তবে দেশটি যেন ইসরায়েলে হামলা না চালায়, এজন্য সতর্ক করছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

শুক্রবার (১২ এপ্রিল) সিবিএস নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন বলেন, ‘আমরা ইসরায়েলকে রক্ষা করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ। এই রাষ্ট্রটির প্রতি সবসময় আমাদের সমর্থন থাকবে। ইসরায়েলকে রক্ষা করতে আমরা অবশ্যই সহযোগিতা করব এবং ইরান কখনও (ইসরায়েলে হামলায়) সফল হতে পারবে না। ইসরায়েলে কোনো হামলা নয়— ইরানের উদ্দেশে আমার বার্তা এটুকুই।’

যুক্তরাষ্ট্রের কর্মকর্তারা সিবিএস নিউজকে বলেছেন, ইসরায়েলের বিরুদ্ধে একটি বড় ধরনের হামলা শিগগিরই হতে পারে। ইসরায়েল বলেছে দেশটি নিজের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে সক্ষম।

ইরান হামাসকে সমর্থন যোগায়, যারা গাজায় ইসরায়েলের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। এছাড়া পুরো অঞ্চল জুড়েই প্রক্সি গ্রুপকে সহায়তা করে দেশটি। এর মধ্যে আছে লেবাননের হেজবুল্লাহ, যারা প্রায়শই ইসরায়েলের বিরুদ্ধে হামলা করে।

শুক্রবার হেজবুল্লাহ জানিয়েছে, তারা লেবানন থেকে ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে কয়েক ডজন রকেট নিক্ষেপ করেছে।

ইসরায়েল ডিফেন্স ফোর্স বা আইডিএফ এর একজন মুখপাত্র বলেছেন প্রায় চল্লিশটির মতো মিসাইল ও দুটি বিস্ফোরক ড্রোন ছোঁড়া হয়েছিল। তবে ক্ষয়ক্ষতির কোন খবর পাওয়া যায়নি এবং পাল্টা কোন পদক্ষেপের কোন ইঙ্গিতও পাওয়া যায়নি।

যুক্তরাষ্ট্রের একজন কর্মকর্তা সিবিএস টেলিভিশনকে বলেছেন ইরানের দিক থেকে যে কোন হামলা থেকে আত্মরক্ষায় আলাদা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।

বিবিসির নিরাপত্তা বিষয়ক সংবাদদাতা ফ্রাঙ্ক গার্ডনার বলেছেন ইরান ইচ্ছে করেই মধ্যপ্রাচ্য ও ওয়াশিংটনকে অনুমানের মধ্যে রাখছে।

উল্লেখ্য, গত ১ এপ্রিল সিরিয়ার ইরানি কনস্যুলেটে এক বোমা হামলায় ১৩ জন নিহত হয়েছিলেন। ইসরায়েলের প্রতিরক্ষা বাহিনী (আইডিএফ) যে হামলাটি চালিয়েছিল তার প্রমাণ পাওয়া গেছে বিভিন্ন সাক্ষ্য ও আলামতে।

তবে দাফতরিকভাবে এখনও এ হামলার দায় স্বীকার করেনি ইসরায়েল। কিন্তু ইতোমধ্যে এই হামলার প্রতিশোধ নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছে ইরান।

সূত্র: বিবিসি বাংলা

সর্বশেষ - আইন আদালত