শনিবার , ১১ মে ২০২৪ | ৫ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও কৃষাণ
  6. ক্যাম্পাস
  7. ক্রিকেট
  8. গল্প-সাহিত্য
  9. চাকুরি
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টালিউড
  13. টেনিস
  14. তথ্য-প্রযুক্তি
  15. ধর্ম ও ইসলাম

ঝুম বৃষ্টিতে রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় জলাবদ্ধতা, দুর্ভোগ

প্রতিবেদক
admin
মে ১১, ২০২৪ ৭:০৫ পূর্বাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) টানা এক মাসেরও বেশি সময় ধরে তীব্র গরমে হাঁপিয়ে উঠেছিল জনজীবন। এরপর দু-একদিন কিছুটা বৃষ্টির দেখা মিলে। তাতেও যেন স্বস্তি ফিরছিল না জনজীবনে। অবশেষে শনিবার ভোরে আকাশ ভেঙে নেমে আসে ঝুম বৃষ্টি। প্রায় দেড় ঘণ্টার মতো ধরে চলা বৃষ্টি নগরজীবনে স্বস্তি দিলেও জলাবদ্ধতা বাড়িয়েছে দুর্ভোগ।

মুষলধারার বৃষ্টিতে পানি জমে জলজট সৃষ্টি হয়েছে বারিধারা, শেওড়াপাড়া, ভাষানটেক, ধানমন্ডি, নিউমার্কেট, নয়াপল্টন, তেজগাঁও, মালিবাগসহ বিভিন্ন জায়গায়।

জলজটের কারণে ভোগান্তিতে পড়েছেন বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ। সাপ্তাহিক ছুটির দিন হওয়ায় সড়কে মানুষের চলাচল কম থাকলেও যাদের বের হতে হয়েছে, তারা পড়েছেন ভোগান্তিতে।

Dhaka-4রাজধানীর অনেক জায়গায় প্রধান সড়ক ছাড়াও অলিগলিতে পানি জমে গেছে। পানি মাড়িয়েই যানবাহন চলতে দেখা গেছে। অনেকে বৃষ্টিতে ভিজেই গন্তব্যে যান।

জলজটে বাজে অবস্থা ছিল ধানমন্ডি ও মিরপুরে। এছাড়া বারিধারা, নিউমার্কেটেও রাস্তায় অনেক পানি দেখা গেছে।

ধানমন্ডিতে রাশেদুল নামে এক পথচারী বলেন, মাত্র এক থেকে দেড় ঘণ্টার বৃষ্টিতে সড়ক তলিয়ে গেছে। এখনো বর্ষা মৌসুম শুরু হয়নি। বর্ষা শুরু হলে কী অবস্থা হবে তা সহজেই অনুমান করা যাচ্ছে।

কয়েক বছর ধরেই বর্ষা মৌসুম রাজধানীবাসীর জন্য এক আতঙ্ক। সামান্য বৃষ্টিতেই ঘণ্টার পর ঘণ্টা জলাবদ্ধ থাকে রাজধানীর অনেক সড়ক। এবার বর্ষা মৌসুম এখনো শুরু না হলেও আজ মাত্র দেড় ঘণ্টার মতো বৃষ্টিতে অনেক সড়কে পানি জমে গেছে।

dhaka-5সংবাদকর্মী সোহেল ধানমন্ডি থেকে বারিধারায় আসার সময় অনেক স্থানে সড়কে পানি জমে থাকতে দেখেছেন। তিনি বলেন, বৃষ্টি শুরু হওয়ার পর এক ঘণ্টারও বেশি সময় একটি দোকানের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলাম। বৃষ্টি শেষে অফিসে আসার পথে অনেক জায়গায় রাস্তায় পানি জমে থাকতে দেখেছি। বৃষ্টিতে চরম ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে।

কাজীপাড়া ও শেওড়াপাড়ায় পূর্ব দিকের রাস্তাতেও পানি জমেছে। বারিধারায় বেশ কিছু সড়কেও পানি জমতে দেখা গেছে।

বারিধারায় ফুটপাতে হেঁটে অফিস যাচ্ছিলেন রাফিউল ইসলাম। ১৩ নম্বর সড়কের মোড়ে ফুটপাতেও পানি ওঠায় তিনি প্যান্ট উঁচু করে পানি পার হন।

Dhaka-6রাফিউল বলেন, শনিবার সরকারি ছুটির দিন হওয়ায় সকালে ঢাকার সড়ক ছিল অনেকটাই ফাঁকা। তবে বৃষ্টির কারণে আসার পথে ভোগান্তিতে পড়তে হয়েছে। বৃষ্টির তীব্রতায় ছাতা থাকা স্বত্বেও ভিজতে হয়েছে অনেক পথচারীকে।

আবহাওয়া অফিসের সর্বশেষ পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যা ছয়টা থেকে শনিবার সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের অনেক জায়গায় এবং রাজশাহী ও রংপুর বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা বা ঝড়ো হাওয়াসহ বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। পাশাপাশি, কোথাও কোথাও বিক্ষিপ্তভাবে শিলা বৃষ্টি হতে পারে। সারাদেশে দিন ও রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে। -নিউজ ডেস্ক

সর্বশেষ - আইন আদালত