শুক্রবার , ১৭ মে ২০২৪ | ৩১শে জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ
  1. অন্যান্য
  2. আইন আদালত
  3. আর্ন্তজাতিক
  4. এক্সক্লুসিভ
  5. কৃষি ও কৃষাণ
  6. ক্যাম্পাস
  7. ক্রিকেট
  8. গল্প-সাহিত্য
  9. চাকুরি
  10. জাতীয়
  11. জেলার খবর
  12. টালিউড
  13. টেনিস
  14. তথ্য-প্রযুক্তি
  15. ধর্ম ও ইসলাম

ঢাকাসহ ৪ বিভাগে আবারও দুই দিনের হিট অ্যালার্ট জারি

প্রতিবেদক
admin
মে ১৭, ২০২৪ ৩:২৯ অপরাহ্ণ

(দিনাজপুর টোয়েন্টিফোর ডটকম) দেশের বেশিরভাগ এলাকাজুড়ে বয়ে চলা মাঝারি থেকে মৃদু তাপপ্রবাহের মধ্যে ঢাকাসহ চার বিভাগে আরও দুই দিনের (৪৮ ঘণ্টা) হিট অ্যালার্ট জারি করেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

শুক্রবার (১৭ মে) বিকালে আবহাওয়াবিদ মো. ওমর ফারুকের স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

ওই সতর্কবার্তায় বলা হয়, ঢাকা বিভাগের পশ্চিমাঞ্চলসহ রংপুর, রাজশাহী ও খুলনা বিভাগের ওপর দিয়ে চলমান তাপপ্রবাহ শুক্রবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ৪৮ ঘণ্টা অব্যাহত থাকতে পারে।

জলীয়বাষ্পের আধিক্যের কারণে অস্বস্তিকর পরিস্থিতি বিরাজ করতে পারে বলেও ওই বার্তায় জানানো হয়েছে।

টানা দাবদাহের কারণে চলতি মে মাসের শুরুতে ও এপ্রিলের শেষে কয়েক দফায় সতর্কবার্তা দিয়েছিল আবহাওয়া অধিদফতর। মাঝে বৃষ্টি হলে তাপমাত্রা কমলে স্বস্তি ফেরে জনজীবনে। তবে সাময়িক সেই সময় পেরিয়ে আবার শুরু হয়েছে তাপপ্রবাহ।

গত বৃহস্পতিবার সারাদেশে মৃদু থেকে মাঝারি তাপপ্রবাহ বয়ে যাওয়ার তথ্য দেয় আবহাওয়া অফিস, যা অব্যাহত থাকতে পারে বলে পূর্বাভাসে বলা হয়।

এবার ৩১ মার্চ থেকে দেশে তাপপ্রবাহ শুরু হয়, যা ৬ মে পর্যন্ত টানা ৩৭ দিন ছিল। এরপর গত সপ্তাহে ঝড়-বৃষ্টির প্রবণতায় কিছুটা স্বস্তি ফেরে।

গত সোমবার থেকে নতুন করে তাপপ্রবাহ শুরু হয়। সেদিন সাত জেলায় দাবদাহ ছিল; পরে তা ধীরে ধীরে সারা দেশে ছড়িয়ে পড়েছে।

মে মাসের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, এ মাসে দেশের কোথাও কোথাও এক থেকে তিনটি মৃদু অথবা মাঝারি তাপপ্রবাহ এবং এক থেকে দুটি তীব্র তাপপ্রবাহ বয়ে যেতে পারে।

বাতাসে তাপমাত্রা ৩৬ থেকে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসের কম হলে তাকে মৃদু তাপপ্রবাহ ধরা হয়। ৩৮ থেকে ৪০ ডিগ্রির কম তাপমাত্রাকে বলা হয় মাঝারি এবং ৪০ থেকে ৪২ ডিগ্রির কম তাপমাত্রাকে তীব্র তাপপ্রবাহ বলা হয়। আর তাপমাত্রা ৪২ ডিগ্রির ওপরে উঠলে তাকে বলা হয় অতি তীব্র তাপপ্রবাহ।

টানা দাবদাহের মধ্যে ৩০ এপ্রিল যশোরে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৪৩ দশমিক ৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে ওঠে। সেটাই এ মৌসুমের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা।

মে মাসে বঙ্গোপসাগরে এক বা দুটি লঘুচাপের পূর্বাভাসও আছে, যার মধ্যে একটি মাসের দ্বিতীয়ার্ধে নিম্নচাপ অথবা ঘূর্ণিঝড়ে রূপ নিতে পারে।

চলতি মাসে নদ-নদীতে স্বাভাবিক প্রবাহ বিরাজ থাকতে পারে। তবে উজানে ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে উত্তরাঞ্চল ও উত্তর-পূর্বাঞ্চলের কোথাও কোথাও পানি বিপৎসীমার ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে।

শুক্রবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৯ দশমিক ৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয় চুয়াডাঙ্গায়। ঢাকার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭ দশমিক ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াস। -ডেস্ক রিপোর্ট

সর্বশেষ - ক্যাম্পাস